দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ১০ এপ্রিল মঙ্গলবার সারাদেশের কর্মসূচীর অংশ হিসেবে খাদ্য অধিকার বাংলাদেশ দিনাজপুর জেলা শাখা আয়োজিত “খাদ্য অধিকার আইন চাই” “সবার জন্য পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাদ্যের নিশ্চয়তা চাই”- এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বহুমুখী শিক্ষাকেন্দ্র (এমবিএসকে) কার্যালয় হতে বর্ণাঢ্য র‌্যালী, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মুখে জমায়েত ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মরকলিপি প্রদান কর্মসূচী পালিত হয়েছে।

খাদ্য অধিকার দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি ও এমবিএসকে’র সভা প্রধান সুলতানা রাজিয়া খাতুন এর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক ও সিডিসি’র নির্বাহী পরিচালক যাদব চন্দ্র রায়, সহ-সভাপতি জিনাত রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আক্তারুজ্জামান পলাশ, সদস্য মোঃ সাখওয়াত হোসেন, বিভাস বিশ্বাস, উম্মে নাহার, নুরুন্নবী, মর্শেদা পারভীন মলি, আনোয়ারুল ইসলাম বাবলু। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন এমবিএসকের উপ-নির্বাহী খালেদ মোশাররফ হোসেন।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে এখন প্রায় আড়াই কোটি মানুষ অপুষ্টিতে ভূগছে। গত ১০ বছরে অপুষ্টিজনিত সমস্যায় ভোগা মানুষের সংখ্যা বেড়েছে ৭ লাখ। উন্নতর পুষ্টি সেইসাথে পর্যাপ্ত মান ও পরিমাণে খাদ্য গ্রহণ এবং অসুস্থ্যতার হার কমানো অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্যই একটি অত্যাবশ্যক বিষয়।

পুষ্টিকর ও পর্যাপ্ত খাদ্য বলতে শুধুমাত্র ভাত-রুটি-ডাল নয়, তার সাথে প্রয়োজনীয় আমিষ অর্থাৎ মাছ-মাংস-ডিম-দুধ, শাক-সবজি, মিষ্টি, ফলমুল ইত্যাদি প্রতিদিন একজন মানুষের সুষম খাদ্যের নিশ্চয়তা থাকা দরকার।

সামগ্রীক প্রেক্ষাপটে নিরাপদ খাদ্য প্রাপ্তি নিশ্চিত করণের লক্ষ্যে সকল পর্যায়ে সচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট সকল ক্ষেত্রে নিরপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা কার্যকর করা অপরিচার্য। বর্তমান প্রেক্ষাপটে বিষয় প্রধান কাজ রাষ্ট্রের উদ্যোগে খাদ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নের কাজ শুরু করা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য