কুড়িগ্রাম-৪ আসন (রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলা এবং চিলমারী উপজেলার নয়াহাট, অষ্টমীচর ও উলিপুর উপজেলার সাহেবের আলগা ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত) কুড়িগ্রাম-৪ আসনের সীমানা পূর্ণ বহালের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার চরশৌলমারী ইউনিয়নের চরশৌলমারী হাইস্কুল মাঠ থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে চরশৌলমারী বাজারের প্রধান প্রধান গলি প্রর্দক্ষিণ শেষে স্কুল মাঠে এসে শেষে হয়। এতে অংশ নেয় কৃষক, শ্রমিক, ব্যবসায়ী, শিক্ষক, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের নেত্রীবৃন্দসহ সকল শ্রেণির স¯্রাধিক মানুষ।

ভৌগলিক কারণে ব্রহ্ম্úুত্র নদ দ্বারা বিভক্ত পূর্ব পাড় রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলা এবং চিলমারী উপজেলার নয়াহাট, অষ্টমীচর ও উলিপুর উপজেলার সাহেবের আলগা ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত আসনটি ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের মুক্তাঞ্চলের জনগণের স্বার্থে পূর্ণ বহালের দাবীতে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, রৌমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী, রাজিবপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শফিউল আলম, চরশৌলমারী ইউপি চেয়ারম্যান কেএম ফজলুল হক মন্ডল, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. আব্দুল কাদের যুদ্ধহত বীর মুক্তিযোদ্ধা, সিএসডিকে এনজিও নির্বাহী পরিচালক মো. আবু হানিফ মাস্টার, শৌলমারী ইউপি চেয়ারম্যান মো. হাবিবুর রহমান, রাজিবপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান মো. কামরুজ্জামান বাদল, আরএসডিএ’র পরিচালক মো. ইমান আলী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান (ভার:) শেখ মো. আব্দুল খালেক, চরশৌলমারী ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ কুদরত উল্লাহ, চরশৌলমারী হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. খলিলুর রহমান, রৌমারী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. আমির হোসেন, রাজিবপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আজিবর রহমান, ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সাইদুর রহমান প্রমূখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য