গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে পৃর্থক দু’টি ঘটনায় দুই শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষনের স্বীকারের ঘটনায় এক ধর্ষককে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

জানা গেছে, উপজেলার কামদিয়া ইউপির পুইয়াগাড়ী (ধর্মপুর) গ্রামের মাহমুদুল সরকারের শিশু কন্যা (৭) প্রথম শ্রেনীর শিক্ষার্থী গত ০৬ এপ্রিল বিকাল সাড়ে ৪টায় প্রতিবেশি জামাত আলীর পুত্র আবু কাহার আলী (১৫) ৮ম শ্রেনীর ছাত্র সুযোগ বুঝে শিশুকে কৌশলে তার ঘরে নিয়ে ধর্ষন করে এ সময় শিশুটির চিৎকারে আশে পার্শ্বে লোকজন আসতে দেখে লম্পট ধর্ষক পালিয়ে যায়।

পরে শিশুটির পিতা মাহমুদুল সরকার বাদী হয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং-২৫।

এদিকে মামলার তদন্তকারী অফিসার এস আই মাহফুজার রহমান গত ৯ এপ্রিল বিকালে দামগাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষক আবু কাহার আলীকে গ্রেফতার গ্রেফতার করেছে।

অপর দিকে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহিমাগঞ্জের পান্থামারী গ্রামের শহিদুল ইসলামের কন্যা ষষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে প্রতিবেশি সাঘাটা উপজেলার নশিয়ার পাড়া গ্রামের এমদাদুল হকের ছেলে শফিকুল ইসলাম (২০) কৌশলে নিজঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে । এ সময় মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে ধর্ষক শফিকুল পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর বাবা সোমবার বিকালে গোবিন্দগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

গোবিন্দগঞ্জ থানা সূত্রে জানিয়েছেন,পৃর্থক দু’টি ধর্ষনের ঘটনায় দুই শিশুকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য