আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার একটি ভুট্টা ক্ষেত থেকে রোকসানা বেগম (৩৩) নামে এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

শনিবার (০৭ এপ্রিল) দুপুরে দিকে উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের পুর্বসারডুবী গ্রামের ভুট্টা ক্ষেত থেকে থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত রোকসানা বেগম (৩৩) বড়খাতা ইউনিয়নের বড়খাতা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত বিজিবি মোজ্জামেল হকের মেয়ে এবং ৪ সন্তানের জননী।

জানা গেছে, শুক্রবার সকাল থেকে পুর্বসারডুবী গ্রামের খলিলুর রহমানের (৪৫) স্ত্রী রোকছানা বেগম (৩৩) কে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। বাড়ির লোকজন অনেক খোঁজার পর বাড়ির পাশে ভুট্টা ক্ষেতে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। থানা পুলিশ ভুট্টা ক্ষেত থেকে ওই চার সন্তানের জননীর লাশ উদ্ধার করে থানা নিয়ে আসেন।

নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, প্রায় সময়ে স্বামী খলিলুর রহমান ও স্ত্রী রোকছানা বেগম এর সাথে ঝগড়া লেগে থাকত। এ নিয়ে বড়খাতা ইউনিয়ন পরিষদের একাধিকবাও বিচার শালীস হয়েছে। ওই দিন খলিলুর রহমান তার স্ত্রীকে মেরে ভুট্টা ক্ষেতে ফেলে রেখে মুখে বিষ ঢেলে প্রচার করেন যে তার স্ত্রী আত্মহত্যা করেছেন।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক বলেন, দুপুরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের মর্গে পাঠানো হয়েছে। মরদেহের সুরতাহাল রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত এবিষয়ে কিছুই বলা যাবে না।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য