দিনাজপুর সংবাদাতাঃ পূর্ব বন্ধুতবতের সুযোগ নিয়ে কলেজ এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে উক্ত কলেজের আবেক জন মোয়েসহ তার এক ছেলে বন্ধুকে আটক করেছে পুলিশ।

এলাকাবাসীর সহযোগিতায় এ দুজনকে আটক করা হয়। তবে ঘটনার সঙ্গে জড়িত অপর দুজন পালিয়ে যায়।

ঘটনার শিকার কলেজ ছাত্রী বাদী হয়ে কোতয়ালি থানায় একটি মামলা করেছে।

কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেদওয়ানুর রহিম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ ব্যাপারে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলায় আটককৃতদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, ঘটনার শিকার ছাত্রীর বান্ধবীর নাম সুবর্ণা আক্তার। সে দিনাজপুর শহরের পুলহাট এলাকার নিজ বাড়িতে ওই ছাত্রীকে মঙ্গলবার দুপুরে দাওয়াত দিয়ে ডেকে নেয়। ছাত্রীটি তার বাড়িতে যাওয়ার পর সুবর্ণা আক্তার ও তার ছেলে বন্ধু বিবেক তাকে একই এলাকার রুবেলের বাড়িতে নিয়ে যায়।

সেখানে তাকে আটকে রেখে ধারালো অস্ত্রের মুখে বিবেক ও তার অপর দুই সহযোগী ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ওই কলেজ ছাত্রী চিৎকার করলে স্থানীয় লোকজন এসে তাকে উদ্ধার এবং বিবেককে আটকের পর পুলিশে সোপর্দ করে।

এর আগে অভিযুক্তরা ওই কলেজ ছাত্রীর দুটি মোবাইল সেট ও গলার একটি চেইন কেড়ে নেয়। যার একটি মোবাইলে বিকাশ অ্যাকাউন্টে ১৫ হাজার টাকাও ছিল।

ঘটনাটি জানানো হলে রাতে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর অভিযুক্ত দুইজনকে আটক করে। বুধবার সকালে ছাত্রী নিজে বাদী হয়ে আটক দুইজনসহ চারজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য