আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধা সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের তিনদহ গ্রামের আব্দুল হালিম আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বিরোধপূর্ণ জমির উপর ঘর উত্তোলন করেছেন। এছাড়াও প্রতিপক্ষ আবু হোসেনের জমি দখল এবং তার পরিবারের বিরুদ্ধে একাধিক মিথ্যা বানোয়াট মামলা দায়ের করে হয়রানী করছে।

মঙ্গলবার গাইবান্ধা প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এসব মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারসহ তার ষড়যন্ত্রমূলক অপচেষ্টার প্রতিকার দাবিসহ জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার বরাবরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আহনান জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উলে¬খ করা হয়, সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের তিনদহ গ্রামের আব্দুল হালিমের কাছ থেকে প্রায় ৩৫ বছর আগে ১৩ শতক জমি ক্রয় করে ভোগদখল করে আসছে আবু হোসেন। ওই ১৩ শতক জমি বেদখলের অপচেষ্টায় আব্দুল হালিম তার পরিবারের বিরুদ্ধে ৪টি মিথ্যা মামলা দায়ের করে।

এসব মামলায় তার ছেলে, ছেলের বউ, ২ নাতি, মেয়ে ও মেয়ে জামাইকে জড়ানো হয়েছে। প্রতিপক্ষ আব্দুল হালিম মিয়াসহ সন্ত্রাসীদের জমি বেদখলের চেষ্টা করলে তিনি গাইবান্ধা সদর সিনিয়র জজ আদালতে ১৮১/১৭ নং চিরস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা মামলা দায়ের করেন।

আদালত অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আদেশ দেন। কিন্তু প্রতিপক্ষ হালিম মিয়া সেই আদেশ অমান্য করে ওই জমির উপর একটি টিনের ছাপড়া উত্তোলন করেন।

এদিকে গত ২০ মার্চ বিনা মামলা ও গ্রেফতারী পরোয়ানা ছাড়াই তার ছেলে মো. শহিদুল ইসলামকে আটক করে থানায় এনে ঘটনার মিমাংসার কথা বলে পরে একটি মিথ্যা মামলায় তাকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আবু হোসেনের ছেলে শহিদুল ইসলাম।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য