‘বৃষ্টি আমাকে খুব টানে। একটা সময় বৃষ্টিতে প্রচুর ভিজেছি। আফসোস, এখন আর সেটা হয় না।’ বৃষ্টির প্রতি আজন্ম প্রেম আর তাকে এখন না ছুঁতে পারার আক্ষেপ- একসঙ্গে দুটোই ঝরলো আঁখি আলমগীরের কণ্ঠে।

বাংলা ট্রিবিউন-এর সঙ্গে আলাপে এই সুকণ্ঠী আরও বললেন, ‘বৃষ্টি এলেই আমি আনমনা হয়ে যাই, ছোটবেলা থেকে। কেন, জানি না। বৃষ্টিতে ভিজে ভিজে আমার সেই আনমনা মনটাকে পাখি করে তুলতাম।

অথচ এখন আর বৃষ্টি ভেজা হয় না। গলা বসে যাবে, ঠাণ্ডা লাগার ভয়ে। কারণ গান তো গাইতে হবে। তাই এখন আমি বৃষ্টি এলে বারান্দায় বসে থাকি। গ্রিল দিয়ে হাত দুটো বের করে রাখি। হাতটা ছোঁয়াই বৃষ্টিতে। এতেই যত আনন্দ।’

এদিকে শীত পেরিয়ে বৃষ্টির দিন এসে গেছে। দরজায় কড়া নাড়ছে আঁখির প্রিয় বৃষ্টি-বৈশাখ। সেই সঙ্গে কাল (২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ব্যানারে প্রকাশ পাচ্ছে তার একটি নতুন গান-ভিডিও। নাম ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’। তবে কি বৃষ্টির প্রেমে পড়ে এই আয়োজন পূর্ব পরিকল্পিত?

জবাবে আঁখি বলেন, ‘পরিকল্পনা তো আছেই। কারণ এটা বেশ বড় প্রজেক্ট। তবে সেই পরিকল্পনা মোটেই বৃষ্টির প্রতি প্রেম বা বৈশাখ মাথায় রেখে নয়। আমরা চেয়েছি একটা ভালো গান তৈরি করতে এবং একটি ভিডিও। অথচ দেখুন, ভিডিওটি করতে গিয়ে আমাকে প্রচুর ভিজতে হলো মনের আনন্দে।

ইনফ্যাক্ট ভিডিওতে এটাই আমার প্রথম বৃষ্টি ভেজা। শুটিং শেষ করার পরই খেয়াল করলাম বৃষ্টির দিন তো চলেই এলো! আর গানের কথাও বেশ রোমান্টিক। ভিডিওটাতেও রোমান্সে ভরা। বৃষ্টির এই সময়ে গানটি দেখে রোমান্টিক অসুখে ভুগবেন সবাই- আমি নিশ্চিত।’

তরুন মুন্সীর কথা-সুর-সংগীতে তৈরি এই গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন ভাস্কর জনি। শুটিং হয়েছে পুবাইলের বিভিন্ন স্থানে। দ্বৈত কণ্ঠের এই গানে আঁখি ছাড়াও কণ্ঠ দিয়েছেন আসিফ। ভিডিওতে মডেল হিসেবে থাকছেন দু’জনেই।

ভিডিও প্রসঙ্গে আঁখি বলেন, ‘গানটা চরম রোমান্টিক। তাই ভিডিওতেও রোমান্সের অভাব নেই। সঙ্গে টিপ টিপ বৃষ্টি। আসিফ ভাই থাকাতে আমার বেশ সুবিধা হয়েছে। অন্য কেউ থাকলে রোমান্টিক বিষয়গুলো হতো না। কারণ, আমাদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ বোঝাপড়াটা আছে। আশা করছি আমাদের বৃষ্টিময় গানটি সবার মনে রোমান্স জাগাতে বাধ্য করবে!’

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন (ডিএমএস) সূত্রে জানা গেছে, প্রতিষ্ঠানটির ইউটিউব চ্যানেল ছাড়াও ২ এপ্রিল থেকে ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’ গানটি শুনতে পাওয়া যাবে ডিএমএস ওয়েব সাইট, জিপি মিউজিক এবং বাংলালিংক ভাইবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য