সৌদি আরবের প্রতিরক্ষাবাহিনী শনিবার ইয়েনের হুথি বিদ্রোহীদের ছোড়া নাজরানমুখী একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করছে। সৌদি আরবের মালিকানাধীন টেলিভিশন আল আরাবিয়া এখবর জানিয়েছে।

নিজস্ব প্রতিনিধির বরাত দিয়ে টেলিভিশন চ্যানেলটি জানায়, সৌদিবাহিনী সৌদি আরবের স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ২০ মিনিটে ক্ষেপণাস্ত্রটি ধ্বংস করে।

আর আরাবিয়া ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসের বিস্তারিত কিছু জানায়নি। তবে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স হুথিদের পরিচালিত সাবা বার্তা সংস্থার বরাতে জানায়, নাজরানে সৌদি ন্যাশনাল গার্ডের ঘাঁটি লক্ষ্য করে একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। এতে শত্রু ও সামরিক সরঞ্জাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সৌদি আরবের দাবি, হুথিদের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ইরানের তৈরি। এই দাবিতে সমর্থন রয়েছে জাতিসংঘ ও যুক্তরাষ্ট্রের। তবে ইরান বরাবরই হুথিদের ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ নাকচ করে আসছে।

গত বছর থেকে বেশ কয়েকবার সৌদি আরব হুথিদের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করার দাবি জানিয়ে আসছে। সৌদি আরবের এই দাবির যথার্থতা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

২০১৫ সালের মার্চে ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ইয়েমেনে ‘অপারেশন ডিসাইসিভ স্টর্ম’ নামে সামরিক অভিযান শুরু করে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন জোট। অভিযানে এখন পর্যন্ত অন্তত ১০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। ইয়েমেনে সৌদি জোটের বিমান হামলার জবাবে গত বছরের ৫ নভেম্বর সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের কিং খালিদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর লক্ষ্য করে ইয়েমেন থেকে স্কাড-শ্রেণির ‘বোরকান-২’ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। ৩০ নভেম্বর আরও একটি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। দুবারই ক্ষেপণাস্ত্রগুলো আকাশে ধ্বংস করার দাবি করে সৌদি আরব। সর্বশেষ ২৫ মার্চ আবারও ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিহত করার দাবি করে সৌদি আরব।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য