বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ছুটির দিনে বিদ্যালয়ের গাছ কর্তনের অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার দুপুর ১২টায় তুলসিপুর করিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি কাঁঠাল গাছ কাটা হয়।

গাছ কাটার সময় সেখানে উপস্থিত মোঃ হাচেন নামে ব্যক্তিকে গাছ কাটার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে জানান, সাবেহগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় কমিটির সভাপতি মোঃ শরিফুল ইসলাম প্রধানের নির্দেশে গাছ দুটি কাটা হয়েছে। মোঃ শরিফুল ইসলাম তুলসিপুর করিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতিও তিনি বলে জানা গেছে।

তুলসিপুর করিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা লিপিকা রাণী রায় জানান, বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের কাছে গাছ কাটার বিষয়টি জানতে পেরে বিদ্যালয়ের সভাপতি মোঃ শরিফুল ইসলাম প্রধানকে ফোন দেই।

তিনি বিষয়টি দেখবেন এবং কাউকে জানাতে নিষেধ করেন। পরে বিষয়টি উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মোঃ নাজিম উদ্দিনকে জানানো হয়। গাছটির আনুমানিক ৬হাজার টাকা হতে পারে।

এ ব্যাপারে তুলসিপুর করিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মোঃ শরিফুল ইসলামের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি গাছ কাটার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় আমাকে পরিকল্পিত ভাবে জড়ানো হচ্ছে। বিষয়টি জানা মাত্রই তাৎক্ষণিক ভাবে প্রসাশনসহ স্থানীয় লোকদের অবহিত করেছি।

উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মোঃ নাজিম উদ্দিন জানান, গাছ কাটার বিষটি মৌখিক ভাবে প্রধান শিক্ষিকার জানিয়েছেন। তবে তুলসিপুর করিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় না সাবেহগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় গাছটির মালিক এ বিষয়ে সভাপতির কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি।

এ বিষয়ে লিখিত ভাবে অফিসকে অবহিত করার জন্য বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে। লিখিত ভাবে অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য