সৈয়দপুরে ঠিকমত ক্লাস না নিয়ে শ্রেণিকক্ষে ছাত্রীদের সাথে যৌন হয়রানি, আপত্তিকর ভাবে তাদের গায়ে হাত দেয়া, গাল ধরে টানাটানি, বাহু চিপে ধরা, চুলের গোছা ধরে টানা, গলা চিপে ধরাসহ বিভিন্ন প্রকার অভিযোগের ভিত্তিতে সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক এস এম শফিউল আজমকে ১৯৭৯ সালের ১১ বিধি মোতাবেক পেশাগত অসদাচরণ করা সম্পর্কে কারণ দর্শানো নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।

গত ২৫ মার্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আনোয়ারুল ইসলাম সন্তোষজনক জবাব চেয়ে ওই শিক্ষককে নোটিশ দেন। ওই নোটিশের অনুলিপি দেয়া হয়েছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দপুর, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, সভাপতি সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় বরাবর।

নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে অভিযোগের ভিত্তিতে গত ১৪ মার্চ বিদ্যালয়ের এডহক কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে সাতদিনের সময় দিয়ে ওই নোটিশ দেয়া হয়। তাতে উল্লেখ করা হয় বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকুরিবিধি ১৯৭৯ এর ১১ ধারায় নি¤েœাক্ত অপরাধ করেছে ওই শিক্ষক।

৭ম শ্রেণির ক-শাখা, ৮ম শ্রেণির খ-শাখা এবং ১০ম শ্রেণির মানবিক শাখার ছাত্রীদের পক্ষ থেকে ওই অভিযোগ পাওয়া যায়। শিক্ষক কর্তৃক শ্রেণিকক্ষে ছাত্রীদের ক্লাস ফাকি দিয়ে এ ধরনের আচরণ বিষয়টি ওই বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকদের মধ্যে আলোচনা-সমালোচনার ঝর উঠেছে। অভিযুক্ত শিক্ষকের সাথে এ বিষয়ে জানার জন্য যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। ফলে তার মতামত নেয়া সম্ভব হয়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য