আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় কেশনা রানী (৪২) নামে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৭ মার্চ) দিনগত রাতে বউ-শাশুড়ির দ্বন্দ্বের জের ধরে ধাক্কাধাক্কির হলে আহত হয়ে পড়েন। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

মৃত কেশনা রানী উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের সঠিবাড়ি মাসান কুড়া এলাকার শ্বশধর চন্দ্রের স্ত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, বড় ছেলে কৃষ্ণ চন্দ্রের বিয়ের পর থেকে বউ শাশুড়ির বনিবনা ছিল না। সামান্য বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ লাগত। বউয়ের কথামত ছেলের হাতেও লাঞ্ছিত হন কেশনা রানী।

এ অভিমানে এক সপ্তাহ ধরে বাড়িতে বউয়ের রান্না করা খাবার খাচ্ছেন না কেশনা রানী। প্রায় সময়ই অভুক্ত থাকতেন তিনি। মাঝে মধ্যে প্রতিবেশীরা ডেকে খাবার দিত।

প্রতিবেশীদের বাড়িতে খাওয়া নিয়ে মঙ্গলবার ছেলে ও বউ মিলে বকাঝকা করেন। একপর্য‍ায়ে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। এতে মাটিতে পড়ে গিয়ে গুরুতর আঘাত পান কেশনা রানী। তাকে উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে কেশনার বাবার বাড়ির লোকজনের মুখ বন্ধ রাখতে রাতভর চলে দেনদরবার। অবশেষে তাদের ম্যানেজ করে কেশনা বিষপানে আত্মহত্যা করেছে উল্লেখ করে বুধবার (২৮ মার্চ) সকালে থানায় অবগত করা হয়।

আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেশ্বর রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ উদ্ধার ও ঘটনার তদন্তে অফিসার পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য