নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌর এলাকার ২ নম্বর ওয়ার্ড গোলাহাট কবরস্থান গেটে গতকাল শুক্রবার রাত ২টার দিকে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। এতে একটি বস্তা গোডাউনের দুই হাজার বস্তা, একটি মোটর সাইকেল, দুটি বস্তা সেলাইয়ের মেশিন, আসবাবপত্র, দুটি ইলেকট্রিক মিটারসহ অন্যান্য জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়েছে।

আগুন লাগার খবর পেয়ে সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের দুটি ইউনিট গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কোয়েল দিয়ে আগুনের সূত্রপাত বলে ক্ষতিগ্রস্ত কারখানার মালিক ও সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস সূত্র নিশ্চিত করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী মোস্তাকিম, সুজন, সোহেল সহ প্রতিবেশী অন্যান্যরা জানায়, এলাকার রেলওয়ে কারখানার কর্মচারী কাইয়ুমের ছেলে রিজওয়ানের বাড়ি (যেখানে সপ্তাহ খানেক আগে তিনি চালের বস্তা তৈরির কাজ শুরু করেন) থেকে হঠাৎ আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহূর্তে তা ছড়িয়ে পড়ে। আগুনের লেলিহান শিখার তাপে আশপাশের বাড়ির ঘুমন্ত লোকজন ঘর থেকে বেরিয়ে আসে।

কারখানার মালিক রিজওয়ান জানান, বস্তার গোডাউনে যে কয়জন কাজ করে তারা প্রতিদিনের মতো কাজ করে বাড়ি চলে যায়। রাতে নাসির নামে একজন বয়স্ক লোক থাকেন দেখা শুনার জন্য। কোয়েল জালিয়ে তিনি ঘুমিয়ে পড়েছিলেন হয়তো এবং সেই কোয়েলে আগুনের সূত্রপাত।

সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মাহমুদুল হাসান জানান, আগুনের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে কর্মীরা। কোয়েল দ্বারা আগুনের সূত্রপাত বলে জানান তিনি। আগুনে প্রায় ২৫লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি আমরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য