আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি : অষ্টম শ্রেণির পড়ুয়া শিক্ষার্থী রাজীব(১৪)। অল্প বয়সেই দেখা দিয়েছে ব্লাড ক্যান্সার। তার চিকিৎসার জন্য ছুটোছুটি করলেও কোনো লাভ হয়নি। বরং এ পর্যন্ত প্রায় ৩ লাখ টাকা খরচ হয়েছে তার পেছনে।

এখন রাজীবের বয়স ১৪ বছর। লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার ইসলামী আদর্শ বিদ্যা নিকেতনের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র সে। রাজীব ওই উপজেলার দক্ষিণ কোটতলী কেন্দ্রীয় কবরস্থান পাড়ার রিক্সাচালক আলিমুদ্দিনের ছেলে।

বর্তমানে রাজিব রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. একেএম কামরুজ্জামানের অধীনে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. একেএম কামরুজ্জামান জানান, রাজিব ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছে। প্রাথমিক অবস্থায় এর চিকিৎসা করলে সুস্থ করা সম্ভব। তার চিকিৎসার জন্য প্রায় ১০ লাখ টাকার প্রয়োজন।

রাজীবের বাবা আলিমুদ্দিন পেশায় একজন দিনমজুর। রিক্সা চালিয়ে সংসার চালান তিনি। এ অবস্থায় ছেলের জন্য চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

আলিমুদ্দিন এসএনএন নিউজকে বলেন, চিকিৎসক বলেছিলেন, চিকিৎসা করালে সুস্থ হয়ে যাবে রাজীব । তবে চিকিৎসার জন্য ১০ লাখ টাকা প্রয়োজন। টাকা যোগাড় করতে না পারায় ছেলের চিকিৎসা করাতে পারছি না। তিনি জানান, বাবার সামনে সন্তান অসুস্থ হয়ে চলাফেরা করলে কোনো বাবাই শান্তি পাবে। শুধুমাত্র টাকার কারণে ছেলেটাকে আমি সুস্থ করতে পারছি না।

আসুন রাজীবের পাশে দাঁড়াই। তাকে সুস্থ করে তুলি। আমাদের সামান্য সহযোগিতা একত্রিত করলে আবারো নতুন জীবন ফিরে পাবে রাজীব। তাকে সহযোগিতা করতে চাইলে যোগাযোগ করুন :-
০১৭১৭-৬১১০৩৮।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য