যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের রাজধানী অস্টিনে একের পর এক সন্দেহভাজন বোমা হামলাকারী বুধবার তার গাড়িতে বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মারা যাওয়ার আগে সে স্বীকারোক্তিমূলক একটি ভিডিও রেখে গেছে। খবর এএফপি’র।

পুলিশ জানায়, তারা ২৩ বছর বয়সী শ্বেতাঙ্গ যুবক মার্ক কোন্ডিটকে নগরীর উপকণ্ঠের একটি হোটেলের বাইরে চারপাশ থেকে ঘিরে রেখেছে। এখানেই ২ মার্চ থেকে একের পর এক বোমা হামলা শুরু হয়। এতে দুই কৃষ্ণাঙ্গ পুরুষ নিহত ও আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়।

অস্টিন পুলিশ প্রধান ব্রায়ান ম্যানলেই বলেন, সন্দেহভাজন শ্বেতাঙ্গ ওই যুবক তার গাড়িতে বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে মারা যায়। বিস্ফোরণের পর পুলিশ কন্ডিটের কাছ থেকে একটি ফোন উদ্ধার করেছে। সেখানে ২৫ মিনিটের একটি ভিডিওচিত্র পাওয়া গেছে।

ম্যানলি বলেন, তিনি এই ভিডিওচিত্রকে যুবকটির স্বীকারোক্তি হিসেবে উপস্থাপন করবেন। ভিডিওচিত্রটিতে কোন্ডিট সাতটি বিস্ফোরণ ঘটানোর কথা স্বীকার করেছে। পুলিশ প্রধান বলেন, আমরা এই ভিডিওটির ব্যাপারে জানতাম। আমরা এটা খুঁজছিলাম। তিনি আরো বলেন, ২৫ মিনিটের ওই ভিডিওচিত্রে কোন্ডিট সন্ত্রাসবাদের বিষয়ে কিছু বলেনি, এমনকি কারো বিরুদ্ধেই ঘৃণাজনিত কোন কথা বলেনি।’

পুলিশ প্রধান বলেন, ‘যুবকটি ওই সব কথার পরিবর্তে ব্যক্তিগত জীবনে সে যে কঠিন সময় পার করছিল তার উল্লেখ করেছে। বাস্তব জীবনের তিক্ত অভিজ্ঞতা তাকে এই পর্যায়ে নিয়ে এসেছে।’ হাউস্টন ক্রনিকল পত্রিকা জানিয়েছে, কোন্ডিট আঞ্চলিক একটি পরিবারে বেড়ে ওঠে। সে স্থানীয় একটি কলেজের ছাত্র ছিল। এএফপি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য