সৌদি আরবের প্রভাবশালী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান জানিয়েছেন, নারী ও পুরুষের মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই। নারীরা পুরোপুরি পুরুষের সমান। রবিবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিবিএস নিউজের সিক্সটি মিনিটস অনুষ্ঠানে এ কথা জানান সৌদি যুবরাজ।

অনুষ্ঠানে সালমানকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল নারীরা কি পুরুষের সমান। জবাবে তিনি বলেন, পুরোপুরি। আমরা সবাই মানুষ এবং এখানে কোনও পার্থক্য নেই।

সৌদি আরবের প্রভাবশালী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান দেশটির ধর্মীয় রীতিনীতি ও সামাজিক সংস্কারে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি দেশটিকে তেল নির্ভরতা থেকে মুক্ত করতে বেসরকারি খাতকে প্রসারিত করছেন এবং নারীদের ক্ষমতায়ন করার দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। সংস্কারের অংশ হিসেবে এরই মধ্যে সৌদি নারীরা গাড়ি চালানো ও স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখার অনুমতি পেয়েছেন। সেখানে চলচ্চিত্র প্রদর্শনও শুরু হয়েছে।

সাক্ষাৎকারে সৌদি যুবরাজ জানিয়েছেন, সরকার নারীদের জন্য সমান মজুরি নিশ্চিত করতে নিয়ম জারি করার জন্য কাজ করছে।

সালমানের নেতৃত্বে এসব সংস্কারের পরও দেশটির নারীরা তথাকথিত পুরুষের অভিভাবকত্বের অধীনে রয়েছেন। এই আইনে নারীদের জীবনের নিয়ন্ত্রক পুরুষ আত্মীয়রা। এর ফলে নারীরা একা বিদেশ ভ্রমণ করতে পারেন না এবং নির্দিষ্ট ধরনের মেডিক্যাল প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হয়।

বিলাসবহুল জীবনযাপনের জন্য সমালোচনার বিষয়ে সালমান বলেন, আমার ব্যক্তিগত খরচের কথা যদি বলেন তাহলে বলব আমি একজন ধনী মানুষ, গরিব নই। আমি গান্ধী বা ম্যান্ডেলা নই। সূত্র: নিউ ইয়র্ক টাইমস।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য