দিনাজপুর সংবাদাতাঃ সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেসরকারী কর্মচারীদের চাকুরী সরকারি করনের দাবীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনায় মানববন্ধন করেছে দিনাজপুর সরকারি সিটি কলেজের ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীবৃন্দ।

১৯ মার্চ সোমবার সকাল সাড়ে ১০ টায় দিনাজপুর সরকারি সিটি কলেজের প্রশাসনিক ভবনের সামনে সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেসরকারী কর্মচারীদের চাকুরী সরকারি করনের দাবীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনায় দিনাজপুর সরকারি সিটি কলেজ কর্মচারী পরিষদের সভাপতি মোঃ শওকত আলীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মোছাঃ জেবুন্নেছার সঞ্চালনায় মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন আমরা ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীগণ দীর্ঘদিন যাবত খন্ডকালিন হিসেবে কর্মরত আছি।

আমরা ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীগণ দীর্ঘ বছর থেকে খন্ডকালিন কর্মচারী হিসেবে চাকুরী করে আসছি। কিন্তু আমরা কোন সরকারি সুযোগ সুবিধা পাইনা। আমাদেরকে কলেজের ফান্ড থেকে ২ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ৪ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন দেয়া হয়। অথচ আমরা কলেজের গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে থাকি। কলেজের কাজে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ সময়টা দিতে হয়।

আমরা দীর্ঘদিন যাবত দিনাজপুর গভঃ কমার্শিয়াল ইনস্টিটিউটে চাকুরী করে আসছি। বর্তমানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপন দ্বারা গত ১২ মে ২০১৬ ইং তারিখে কমার্শিয়াল ইনস্টিটিউটটি দিনাজপুর সরকারি সিটি কলেজে রূপান্তরিত হয়। এই কলেজে সুদীর্ঘ বছর কাজ করে আমাদের কাজের দক্ষতা হয়েছে, আমরা এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘ দিন চাকুরী করার ফলে আমাদের সরকারি চাকুরীর বয়স সীমা শেষ হয়ে গেছে।

আমাদের অন্য কোথাও চাকুরী করার সুযোগ নাই। এখন আমাদের সামনে শুধুই অন্ধকার। বক্তারা সকল সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেসরকারি কর্মচারীদের চাকুরী সরকারি করনের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

মনববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সরকারি সিটি কলেজ কর্মচারী পরিষদের সহ-সভাপতি মোঃ আবুল কালাম, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রশিদ, কোষাধ্যক্ষ মোছাঃ আনোয়ারা খাতুন, সদস্য- মোঃ আলমগীর হোসেন, মোঃ আজিজুর রহমান, মোঃ রুহুল আমিন, মোঃ রশিদুল ইসলাম বাবু ও মোঃ রিপন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য