দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার বিভিন্ন সড়ক ও মহাসড়কে ৩ চাকার যান চলাচল নিষেধাজ্ঞা থাকলেও উপজেলায় বিভিন্ন রাস্তায় বেপরোয়া ভাবে অবৈধ ভাবে চলছে নছিমন, করিমন ও ব্যাটারী চালিত চার্জার।

বিআরটিএ থেকে এসব গাড়ি চলাচলের কোন অনুমোদন না থাকলেও উপজেলার, কাহারোল-সেতাবগঞ্জ, কাহারোল-বীরগঞ্জ, কাহারোল-ধুকুরঝাড়ী, কাহারোল-দশমাইল ও দশমাইল-দিনাজপুর রোডে অহরোহ মহাসড়ক সহ বিভিন্ন সড়কে চলছে। উপজেলার প্রতিটি হাট বাজারে অবৈধ ভাবে ষ্ট্যান্ড করে যান জোট সৃষ্টি হচ্ছে।

কম খরচে এবং ভাড়া বেশি পাওয়ায় মালিকরা এই ব্যবসার দিকে ঝুকে পড়েছেন। জানা যায়, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কিছু অসাধু কর্মকর্তাদের মাসিক মাসোহারার বিনিময়ে ম্যানেঞ্জ করে মহাসড়কে এই অবৈধ যানবাহন গুলো অবাধে চলাচল করছে। প্রতিদিন সকাল হতে রাত্রি পর্যন্ত দশমাইল, দিনাজপুর, দশমাইল-ঠাকুরগাঁও ও দশমাইল সৈয়দপুর মহাসড়কের উপর দিয়ে যাতায়াত করছে।

নছিমন, করিমন ও ব্যাটারী চালিত চার্জার গুলি অবাধে চলাচল করলেও ব্যবস্থা নিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। এসকল অবৈধ গাড়ি গুলি মহাসড়কের উপর পার্কিং করার ফলে দূর্ঘটনা সহ বিভিন্ন ধরনের ঘটনা ঘটছে। সম্প্রতি কাহারোল উপজেলা বিভিন্ন সড়ক ও মহাসড়কে বৃদ্ধি পেয়েছে এসকল অবৈধ যানবাহন।

গতকাল রবিবার সকাল ১১ টায় দশমাইল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল মালেক জানান, আমরা বিভিন্ন সময়ে নছিমন, করিমন ও ব্যাটারী চার্জার রাস্তায় পেলে মামলা দিচ্ছি। গতকাল আমি ১৩ টি ব্যাটারী চালিত অটো চার্জারের ব্যাটারী খুলে নিয়েছি। অনেকেই সর্তক করে দেওয়া হচ্ছে। তিনি আরও জানান, আমরা জোরালো পদক্ষেপ নিচ্ছি এসকল অবৈধ যানবাহন বন্ধ করা জন্য।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য