আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের সদর উপজেলার মোগলহাট ইউপি নিকাহ রেজিস্টার কাজি ওমর আলীর বাড়ি থেকে বাল্যবিয়ের বরসহ ৬জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার(৮ মার্চ) দুপুরে লালমনিরহাট সদর থানার উপ পরিদর্শক(এসআই) সেলিম রেজা বাদি হয়ে নিকাহ রেজিস্টারসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

এর আগে বুধবার(৭ মার্চ) দিনগত রাতে গোপনে কাজিবাড়িতে বাল্যবিয়ের প্রস্তুতি কালে তাদেরকে আটক করে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের উত্তর গোবদা গ্রামের নুর জামালের ছেলে বর আনোয়ার হোসেন(২৯), একই এলাকার আলম মিয়ার স্ত্রী মর্জিনা খাতুন (২৫), আব্দুল কুদ্দুসের স্ত্রীর সোনিয়া বেগম(২৬), আনু মিয়ার স্ত্রী মোমিনা খাতুন(২৮), নুর আমিনের ছেলে আলম মিয়া(৩০) ও আবুল কাশেমের ছেলে আব্দুল কুদ্দুস(২৯)।

মামলার বাদী লালমনিরহাট সদর থানার উপ পরিদর্শক(এসআই) সেলিম রেজা জানান, সদর উপজেলার ফুলগাছ এলাকার মৃত আলতাব হোসেনের মেয়ে আদুরী খাতুনের(১৪) সাথে বিবাহের আলোচনা চুড়ান্ত হয় নুর জামালের ছেলে আনোয়ার হোসেনের। কিন্তু মেয়ের বয়স পুর্ন না হওয়ায় কণের বাড়িতে ছোট পরিসরে আপ্যায়নের আয়োজন চলে। বিয়ের মুল আনুষ্ঠানিকতার জন্য নিজ বাড়ি প্রস্তুত করেন মোগলহাট ইউনিয়নের নিকাহ রেজিস্টার কাজি ওমর আলী।

কথামত কণে পক্ষের লোকজন কাজিবাড়িতে উপস্থিত হলে গোপন খবরের ভিত্তিতে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) জয়শ্রী রানী রায় ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠান। কিন্তু পুলিশের উপস্থিতি বুঝতে পেয়ে কাজিসহ কণে পক্ষের লোকজন বাড়ি থেকে সটকে পড়েন।

এরপর বর পক্ষ সাজগোজ নিয়ে কাজিবাড়িতে উপস্থিত হলে স্থানীয় জনতার সহযোগিতায় পুলিশ তাদের আটক করে।

এ ঘটনায় বাল্যবিয়ে নিরোধ আইনে বাল্যবিয়ে প্রস্তুতির দায়ে নিকাহ রেজিস্টার ওমর আলী ও বর পক্ষের আটক ৬ জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে পুলিশ।

লালমরিরহাট সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মাহফুজ আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য