দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলা পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে গত দু’বছরে ১৫ কোটি ৪৩ লাখ ৭ হাজার ৮শ’ টাকার মাদকদ্রব্য উদ্ধারসহ ৮ হাজার ৬৭৮ আসামী আটক করা হয়েছে।

দিনাজপুর পুলিশ প্রশাসন জেলার বিভিন্ন স্থানে ২০১৬ সালের জানুয়ারী মাস হতে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারী মাস পর্যন্ত মাদক বিরোধী এই অভিযান পরিচালনা করে। দিনাজপুর জেলা সিনিয়র জেলা তথ্য অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. সোহেল মিয়া এসব তথ্য জানান।

জেলা পুলিশ ২৬ মাসে ৭ হাজার ৬৮৮টি মাদক বিরোধী অভিযান পরিচলনা করে। এসব অভিযানে ৭ হাজার ৩৯টি মামলা, ১০ হাজার ১৩১ জনকে আসামী করা হয় এবং এসব মামলায় ৮ হাজার ৬৫২ আসামীকে আটক করা হয়।

২০১৬ সালের জানুয়ারী হতে ডিসেম্বর পর্যন্ত ১ হাজার ৮৪৬টি অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসব অভিযানে ১ হাজার ৬৪২টি মামলায় ২ হাজার ৭৬৯ জনকে আসামী করা হয়। এ সব মামলায় ১ হাজার ৭৬৬ আসামীকে আটক করা হয়। ২০১৬ সালের অভিযানে ফেনসিডিল, চোলাই মদ, ইয়াবা, হেরোইন, গাঁজা, ইনজেকশন, বিদেশী মদ, এলকোহল, নেশাদল ও ওয়াসসহ ৭ কোটি ১৭ লাখ ১৩ হাজার ২শ’ টাকার মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

২০১৭ সালের জানুয়ারী হতে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৫ হাজার ৪২১টি অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসব অভিযানে ৫ হাজার ১১টি মামলায় ৬ হাজার ৭৯৫ জনকে আসামী করা হয়। এ সব মামলায় ৬ হাজার ৩৭১ আসামীকে আটক করা হয়। ২০১৭ সালের অভিযানে ফেনসিডিল, চোলাই মদ, ইয়াবা, হেরোইন, গাঁজা, ইনজেকশন, বিদেশী মদ ও এ্যাম্পুলসহ ৭ কোটি ৮৫ লাখ ৪ হাজার ৩শ’ টাকার মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

এবং ২০১৮ সালের জানুয়ারী হতে ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত ৪২১টি অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সব অভিযানে ৩৮৬টি মামলা করা হয়। এসব মামলায় ৫৬৭ জনকে আসামী করা হয় এবং ৫১৫ আসামীকে আটক করা হয়। এবং ২০১৮ সালের দুই মাসের অভিযানে ফেনসিডিল, চোলাই মদ, ইয়াবা, হেরোইন, গাঁজা, ইনজেকশন, এ্যামপুল ও বিদেশী মদসহ ৪০ লাখ ৯ হাজার ৩শ’ টাকার মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

সব চেয়ে বেশী অভিযান পরিচালনা করা হয় ২০১৭ সালে। ২০১৭ সালে ৫ হাজার ৪২১টি অভিযানে ৫ হাজার ১১টি মামলা হয়। এ সব মামলায় ৬ হাজার ৭৯৫ জনকে আসামী ও ৬ হাজার ৩৭১ আসামীকে আটক করা হয়। ২০১৭ সালের অভিযানে ফেনসিডিল, চোলাই মদ, ইয়াবা, হেরোইন, গাঁজা, ইনজেকশন, এ্যাম্পুল ও বিদেশী মদসহ ৭ কোটি ৮৫ লাখ ৪ হাজার ৩শ’ টাকার মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

দিনাজপুর জেলাকে মাদকমুক্ত রাখতে পুলিশ প্রশাসন মাদক বিরোধী এই অভিযান আরো জোরদার করা হবে বলে জানান জেলা সিনিয়র তথ্য অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. সোহেল মিয়া।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য