আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকেঃ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ধানের জমির উপর নির্মানাধীন আকিজ বিড়ি ফ্যক্টরী সড়াতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে লিখিত আবেদন করেছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী জানান, উপজেলার তালুক বানিনগর মৌজার এক নং সিটের ৬৩০ হতে ৭৪৫ নং দাগের প্রায় এগার একর ধানের জমির উপর আকিজ গ্রুপ গত ২/৩ মাস ধরে আকিজ বিড়ি ফ্যক্টরী নির্মান কাজ শুরু করে। ভুট্টা ক্রয় কেন্দ্রের কথা বলে জমি ক্রয় শেষে সেখানে বিড়ি ফ্যক্টরীর সাইন বোর্ড সাঁটে আকিজ গ্রুপ।

স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্বক ক্ষতিকর বিড়ি ফ্যাক্টরী নির্মিত হলে এলাকার পরিবেশ দুষনের সাথে কমে আসবে এলাকার ধান উৎপাদনের পরিমান। প্রথম দিকে স্থানীয় ভাবে বাঁধা দিয়ে ব্যর্থ হয়ে এর প্রতিকার চেয়ে দেড় শতাধিক কৃষক প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লিখিত আবেদন করেন। যার অনুলিপি বিভিন্ন মন্ত্রনালয়সহ জেলা প্রশাসক ও প্রেস ক্লাবকে দেয়া হয়।

ওই এলাকার আমিনুল ইসলাম ও নুর ইসলাম বলেন, এসব ধানের জমিতে বছরে দু’বার ধানসহ তিনটি ফসলের চাষ হয়। এসডিজি অর্জনে সরকার তামাক জাত পন্যকে নিরুৎসাহিত করছে। সেই তামাক জাতপন্যের ফ্যক্টরী হলে ধানের উৎপাদন কমে যাওয়াসহ এলাকার পরিবেশ দুষন ঘটবে। তাই প্রতিকার চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করা হয়েছে। আকিজ গ্রুপ তামাক বাদে অন্য কোন পন্যের ফ্যক্টরী করলে কোন আপত্তি থাকবে না বলেও দাবি করেন তারা।

আকিজ গ্রুপের নির্মানাধীন এ বিড়ি ফ্যক্টরীর প্রকল্প ব্যবস্থাপক আনোয়ার হোসেন জানান, বিড়ি তৈরী নয়, এখানে তামাক ও ভুট্টার গোডাউন করা হচ্ছে। তবে সাইন বোর্ডে আকিজ বিড়ি ফ্যক্টরী লেখা কেন ? এমন প্রশ্নের কোন সদুত্তর দেননি তিনি।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ বলেন, কৃষকদের অভিযোগটি পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য