ইরাকের নিরাপত্তা বাহিনী দেশটির উত্তরাঞ্চলে মসুলে আজ (শুক্রবার) একটি গণ-কবর খুঁজে পেয়েছে।

মসুলের পশ্চিমাঞ্চলে আবিষ্কৃত হয়েছে এই গণ-কবর। তাকফিরি-ওয়াহাবি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএল তথা দায়েশ (আইএস)-সদস্যদের হাতে নিহত ৪০ জন ইরাকি খ্রিস্টান নাগরিকের লাশ পাওয়া গেছে এই গণ-কবরে। মসুল ছিল দায়েশের কথিত খেলাফতের রাজধানী ও সবচেয়ে বড় ঘাঁটি।

এর আগে গত বুধবার ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনী মসুলের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলেও একটি গণ-কবর খুঁজে পায়। এই গণকবরে ছিল প্রায় ১০০ জন দায়েশ সদস্যের লাশ। এই গোষ্ঠীর সঙ্গে মতবিরোধের কারণে অথবা নির্দেশ অমান্য করার কারণে তাদের হত্যা করা হয়েছিল।

ইরাকে দায়েশের পতনের পর থেকে এই গোষ্ঠীর হাত থেকে মুক্ত করা অঞ্চলগুলোতে অন্তত এক কুড়ি গণ-কবর আবিষ্কৃত হয়েছে। গত বছরের দশ জুলাই মসুলকে দায়েশ-মুক্ত করতে সক্ষম হয় ইরাকের সশস্ত্র ও জনপ্রিয় স্বেচ্ছাসেবী গণ-বাহিনী তথা হাশদআশশাবি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য