সিরিয়ার দামেস্কর শহরতলী পূর্ব ঘৌটায় বোমা হামলায় ১৩ দিনে কমপক্ষে ৬৭৪ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছন। হোয়াইট হেলমেট হিসেবে পরিচিতি সিরীয় স্বেচ্ছাসেবী দল দ্য সিরিয়ান সিভিল ডিফেন্স শুক্রবার এই তথ্য জানিয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

হোয়াইট হেলমেটের পক্ষ থেকে শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) বলা হয়, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সিরিয়ার রাজধানীর পাশের গ্রামাঞ্চলটিতে রাশিয়ার সহায়তার বিমান হামলা শুরু করে সরকারি বাহিনী। ওই হামলায় এখন পর্যন্ত ৬৭০ জনের বেশি নিহত হয়েছেন।

আসাদ সরকারের বিরোধীদের সর্বশেষ শক্তিশালী ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত পূর্ব ঘৌটায় প্রায় ৪ লাখ মানুষের বাস। ২০১৩ সাল থেকে এলাকাটি বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। সেখানে ধারাবাহিক বিমান হামলায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের তীব্র নিন্দার পর নিরাপত্তা পরিষদে ৩০ দিনের অস্ত্রবিরতির প্রস্তাব সর্বসম্মত পাস হয়। কিন্তু তারপরও বিমান হামলা বন্ধ না হওয়ায় ওই অস্ত্রবিরতি এখনও কার্যকর হয়নি।

হোয়াইট হেলমেটের সদস্য মাহমুদ আদম বলেন, তথাকথিত অস্ত্রবিরতির পরও এখন পর্যন্ত ১০৩ জন নিহত হয়েছে। তাদের মধ্যে ২২ শিশু ও ৪৩ জন নারী রয়েছেন। তিনি আরও বলেন, পূর্ব ঘৌটার আবাসিক এলাকা লক্ষ্য করে সিরীয় ও রুশ বিমানের কৌশলগত হামলা এখনও বন্ধ হয়নি।

পূর্ব ঘৌটার বাসিন্দারা ৫ ঘণ্টার দৈনিক মানবিক বিরতির বিষয়ে তাদের অবিশ্বাসের কথা জানিয়েছেন। ওই বিরতি ঘোষণার সময় বলা হয়েছিল, সেখানে মানবিক করিডোরের মাধ্যমে বেসামরিক ও আহত ব্যক্তিদের উদ্ধারের জন্য ত্রাণকর্মীদের ঢুকতে দেওয়া হবে বলা হয়েছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত উদ্ধার সহায়তাকারীদের একটি দলও সেখানে প্রবেশ করতে পারেনি। আর বাসিন্দারা বলছেন, তারা সেখান থেকে চলে যাওয়ার সময় নিরাপত্তার কোনও নিশ্চয়তা দেওয়া হয়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য