সংবাদ সম্মেলনঃ জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হত্যা ও মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টার অভিযোগে আব্দুল মোমেন নামের এক ভুমিদস্যু ব্যক্তির কঠোর শাস্তির দাবী করে গতকাল দিনাজপুরে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করেছে স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্থ্য সাধারন মানুষেরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নির্দয় মারধোর-হত্যা ও মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টায় লিপ্ত থাকার অভিযোগে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সেলিনা পারভীনের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রাশেদ পারভেজ। লিখিত বক্তব্যে বলা হয়েছে, কসবা এলাকার ভুমিদস্যু আব্দুল মোমেন বিভিন্ন জনের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে জড়িয়ে আসছেন। এসব বিরোধের জেরে কিছুদিন পূর্বে তার আপন চাচাতো বোন সেলিনা পারভীনকে নির্দয় ভাবে মারধোর করে দাঁত ভেঙ্গে ফেলাসহ গলায় রশি পেচিয়ে হত্যার চেস্টা চালায়।

শুধু তাই নয়, মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানোর জন্য নিজ মেয়েকে দিয়ে তার উপর হামলা-মারপিট ও হাসপাতালে ভর্তির নাটক করছে। সত্য ঘটনা তুলে ধরে স্থানীয় ২/১টি পত্রিকায় সংবাদটি প্রকাশিত হওয়ায় তার জামাতা মোঃ জাফর আলী সাংবাদিকেেদর মারধোরের হুমকী প্রদান করেছে। সংবাদ সম্মেরনে উল্লেখিত ব্যক্তির বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির দাবী করেন তারা।

এর আগে একই দাবীতে বেলা সাড়ে ১২ টায় প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে এক মানববন্ধন করে কসবা এলাকার বাসিন্দারা। এ সময় সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় তারা বলেন,আব্দুল মোমেন মামলাবাজ ,দাঙ্গাবাজ এবং হিংসাবিদ্বেশ পরায়ন লোক হওয়ায় তার বিরুদ্ধে নিরীহ মানুষেরা প্রতিবাদ করতে পারেনা। সরকার দলীয় ও প্রভাবশালী দুই জামাতার ক্ষমতার দম্ভে অস্থির করে রেখেছে সাধারন মানুষদের। জমিদখলের জন্যে সে মরিয়া হয়ে উঠেছে,একেক সময় একেক ধরনের কর্মকান্ড কওে বেড়াচ্ছে যে কারনে মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে।

ইতিমধ্যেই তার মেয়ে রিফা জান্নাতকে দিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর পরিকল্পনা করেছে যা পত্রিকার সংবাদে বিস্তারিত উঠে এসেছে। এরপরেও তারা সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যামে আবারো মিথ্যাকে সত্যে পরিনত করার চেষ্ঠায় লিপ্ত রয়েছে। আমরা এধরনের অপরাধী লোক এবং তার সঙ্গীদের ব্যাপাওে প্রশাসনের কাছে আইনী সহায়তা প্রত্যাশা করছি।

প্রায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে এলাকার শতাধিক নারী-পুরুষ অংশগ্রহন করে। পরে একই অভিযোগে এবং অভিযুক্তের বিচারের দাবিতে প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেন তারা। এ সময় এলাকার কাউন্সিলর মাসতুরা বেগম পুতুল, রাশেদ পারভেজ, শফিকুল ইসলাম, মিরিজ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য