ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী- আইআরজিসি নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি একটি স্বল্পপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র উদ্বোধন করেছে। হেলিকপ্টারে স্থাপনযোগ্য এই ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ভূমিতে অবস্থিত যেকোনো লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানা যাবে।

ফার্সি ভাষায় এই ক্ষেপণাস্ত্রের নাম দেয়া হয়েছে অজারাখ্‌শ যার অর্থ বজ্র। গতকাল (বুধবার) তেহরানে আইআরজিসি’র কমান্ডার মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ আলী জাফারি এই ক্ষেপণাস্ত্রের মোড়ক উন্মোচন করেন।

১২৭-মিলিমিটার ক্যালিবারের এই ক্ষেপণাস্ত্রের ওজন প্রায় ৭০ কেজি এবং এটির দৈর্ঘ্য ৩,০৯৬ মিলিমিটার।

আকাশ থেকে ভূমিতে অথবা ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপযোগ্য এ ক্ষেপণাস্ত্র সেকেন্ডে ৫৫০ মিটার গতিতে ছুটে গিয়ে সর্বোচ্চ ১০ কিলোমিটার দূরবর্তী লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষময়। ক্ষেপণাস্ত্রটিতে থার্মোগ্রাফিক ডিটেক্টর বসানো রয়েছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সমরাস্ত্র উৎপাদনের ক্ষেত্রে ইরান যথেষ্ট অগ্রগতি অর্জন করেছে এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। বিশেষ করে ক্ষেপণাস্ত্র নির্মাণ শিল্পে ইরান এখন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশগুলোর কাতারে শামিল হয়েছে।

প্রায়ই নানা ধরনের সামরিক মহড়ায় এসব সমরাস্ত্রের পরীক্ষা চালাচ্ছে ইরান। অবশ্য তেহরান শুরু থেকেই বলে এসেছে, প্রতিবেশী কোনো দেশকে হুমকি দেয়ার জন্য নয় বরং আত্মরক্ষার লক্ষ্যে দেশটির প্রতিরক্ষা সক্ষমতা শক্তিশালী করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য