দিনাজপুর সংবাদাতাঃ পাট চাষীদের দৈনন্দিন জীবনের সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না আনন্দ কষ্ট এবং চাষীদের বিশ্বাস-সংস্কারের কথার পাশাপাশি কৃষক সমাজের উপর মহাজনদের শোষনের কথা ফুটিয়ে তোলা নাটক আতরআলীদের নীলাভ পাট সকল দর্শককে মুগ্ধ করেছে।

গত রবিবার দিবাগত রাতে দিনাজপুর নাট্য সমিতির মঞ্চে জেলা প্রশাসন ও জেলা শিল্পকলা একাডেমীর যৌথ আয়োজনে মঞ্চস্থ হলো নাট্য সমিতির প্রজোযনায় সেলিম আল দীন রচিত নয়ন বার্টেল এর নির্দেশনায় আতরআলীদের নীলাভ পাট নাটক।

নাটকে নাট্যকার সেলিম আল দীন বাংলা জনপদের কৃষক সমাজের জীবন চিত্র উপস্থাপন করেছেন। পাট চাষীদের দৈনন্দিন জীবনের সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না আনন্দ কষ্ট এবং চাষীদের বিশ্বাস-সংস্কারের কথার পাশাপাশি কৃষক সমাজের উপর মহাজনদের শোষনের কথাও ব্যক্ত করেছেন। পাট বিক্রিকে কেন্দ্র করে আতরআলীর সঙ্গে মহাজনের কর্মচারীর দ্বন্ধ চরমে পৌছে। সরকারি গোডাউনে বিক্রি করলে ন্যায্য দাম কৃষকরা পায়।

মহাজনের নির্ধারিত মূল্যই পাট বিক্রি করতে বাধ্য হয় চাষীরা। কারণ মহাজনের কাছ থেকে চাষীরা ঋণ নিয়েছে, জীবন জীবিকার স্বার্থে। মহাজনের সুদের টাকা পরিশোধ করতে হয় তাদের পাট দিয়ে। ফলে চাষীরা সরকারের কাছে ন্যায্য মূল্যে পাট বিক্রি করতে পারেনা। প্রান্তিক কৃষক তার উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য দাম থেকে বঞ্চিত হয়।

দর্শক জনপ্রিয় এ নাটকের অভিনয়ে সকল দর্শকের মন ছুয়ে যায়। পাশাপাশি মঞ্চ, লাইট, মেকাপ এবং আবহ সঙ্গীত মোটামুটি ভাল।
নাটকের যারা অভিনয় করেছেন প্রথম বৃদ্ধ-শেখ ছাপীর আহমেদ কমল, দ্বিতীয় বৃদ্ধ-টংক নাথ অধিকারী, আতরআলী-সম্বিত সাহা সেতু, মুন্সী-বাবলু দাস, নতু-মীন আরা পারভীন ডালিয়া, গরু ব্যবসায়ী-চন্দন সরকার নয়ন, সুলতান কামাল উদ্দিন বাচ্চু, কবিরাজ-ষষ্টি চন্দ্র, প্রতিবেশী-১ রিপন, প্রতিবেশী-২ তানিম খান, মৌলভী-তরিকুল আলম, বিল্লাল-বেলাল হোসেন, গ্রাম বাসী-রাজা রায়হান ও আসাদুজ্জামান আসাদ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য