হাসান ফেরদৌস রাসেল রংপুরঃ ব্রিটিশ কাউন্সিল এর সহায়তায় কনজুমারস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশে(ক্যাব), রংপুর সদর উপজেলায় ”বাংলাদেশে পোল্ট্রি সেক্টরে নিরাপদ খাদ্য অনুশাসন প্রকল্প” বাস্তবায়ন করছে।

প্রকল্পের কার্যক্রমের অংশ হিসাবে খামারী ও হাঁস-মুরগী বিক্রেতাদের নিয়ে নিরাপদপোল্ট্রি খাদ্য নিশ্চিতকরণে খামারী ও হাঁস-মুরগি বিক্রেতাদের ভূমিকা বিষয়ক কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

২৬ ফেব্রুয়ারী সোমবার সকালে জেলা প্রাণিসম্পদ সেমিনার হল রুমের কর্মশালায় সদরউপজেলার বিভিন্ন পোল্ট্রি খামারী ও বিভিন্ন মার্কেট থেকে হাঁস-মুরগী বিক্রেতা সহ মোট ২৫ জন প্রতিনিধি অংশগ্রহন করেন।

কর্মশালায় রিসোসর্ পার্সন হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ডা: মো:মাহাবুবুল আলম, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা, রংপুর এবং মো: ফজলুল করিম, পোল্ট্রি উন্নয়ন কর্মকর্তা, সরকারী হাঁস মুরগীর খামার, লালবাগ, রংপুর।

আরো উপস্থিত ছিলেন ক্যাব এর ফিল্ড কোার্ডিনেটর জনাব মো: ইকবাল হোসেন এবং ঢাকা থেকে আগত পোল্ট্রি রিসার্স টিমের টিম লিডার সীমা দাস।

কর্মশালায় নিরাপদ পশুখাদ্য বলতে কি বুঝায়, পোল্ট্রির ভ্যাক্সিন প্রদান, ঔষধ খাওয়ানোর বিধি এবং খামর ও হাঁস মুরগীর বিক্রয় স্থান স্বাস্থ্যসম্মত রাখার ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

কর্মশালায় উপস্থিত খামারী ও মুরগী বিক্রেতাগণ বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করেন এবং তাদের ঔষধ খাওয়ানো ও এর বিরতিকাল মেনেচলার উপর জ্ঞাণ ও দক্ষতা বৃদ্ধি পায় যা ভবিষ্যতে নিরাপদ পোল্ট্রি খাদ্য নিশ্চিতকরণে সহায়ক হবে এবং নিরাপদ পোল্ট্রি মাংশ ও ডিম উৎপাদনেবিশেষ ভূমিকা রাখবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য