আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের উপ-নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। শনিবার সকাল ১১টায় গাইবান্ধা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রার্থীদের উপস্থিতিতে প্রতীক বরাদ্দ দেন রংপুর অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার জি এম সাহাতাব উদ্দিন।

প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আফরুজা বারী (নৌকা), জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী ব্যারিষ্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারি (লাঙ্গল), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) জিয়া জামান খাঁন (আম) ও গণফ্রন্টের শরিফুল ইসলাম (মাছ) প্রতীক পেয়েছেন।

রিটার্নিং অফিসার জি এম সাহাতাব উদ্দিন জানান, সুন্দরগঞ্জ উপ-নির্বাচনে চার প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ আসনে পাঁচজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। কিন্তু যাচাই-বাছাইয়ে ত্রুটি পরিলক্ষিত হওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আহসান হাবীব মাসুদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। বর্তমানে এ আসনে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

প্রার্থীরা এখন থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচার-প্রচারণা শুরু করতে পারবেন। এসময় সকল প্রার্থীকে নির্বাচনি আচরণবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান তিনি।

আগামী ১৩ মার্চ গাইবান্ধা-১ আসনে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৫৫৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৬৪ হাজার ৯৩৪জন এবং মহিলা ১ লাখ ৭৩ হাজার ৬২২ জন। মোট ভোট কেন্দ্র ১০৯টি।

২০১৭ সালের ১৯ ডিসেম্বর সাংসদ গোলাম মোস্তফা আহমেদ সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান। যার কারণে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। সে মোতাবেক গত ৪ ফেব্রুয়ারী নিবার্চন কমিশন উপনিবার্চনের তফশীল ঘোষণা করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য