আখতারুজ্জামান: ঠাকুরগাঁও শহরের নিশ্চিন্তপুর থেকে আবু বক্কর (১৬) নামে এক কাওমী মাদ্রাসার ছাত্রের দগ্ধ মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার সকালে ওই মাদ্রাসার বাথরুম থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

তবে পরিবারের স্বজনদের দাবি এটি হত্যাকান্ড। আবু বক্কর সদর উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের বাহাদুর পাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে।

মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা জানায়, ফজরের নামাজের পর বাথরুমের দরজা ভেঙে বক্করের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এসময় বাথরুমের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ ছিল।

আবু বক্করের স্বজনরা জানায়, শুক্রবার সকালে সে বাড়ি আসে। দুইশ’ টাকা নিয়ে সন্ধ্যার আগেই মাদ্রাসায় ফিরে যায়। আর সকালে তার মৃত্যুর খবর পায় তারা।

তাদের দাবি এটি রহস্যজনক হত্যাকান্ড। তবে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ এটিকে আত্মহত্যা বলে দাবি করছে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ মিয়া জানান, ঘটনা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য