আখতারুজ্জামান: ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক ও জনপথ সওজ বিভাগের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছে। শহরের বহুল আলোচিত মসজিদ মার্কেট ও জজকোটের সীমানা প্রাচীর গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।

যানজট নিরসনে সড়ক ও জনপথ বিভাগ ৬২ কোটি টাকার প্রকল্প ধরে ঠাকুরগাঁও চৌরাস্তা থেকে বালিয়াডাঙ্গী মোড় পর্যন্ত ৪ দশমিক ২ কিলোমিটার চার লেন সড়ক নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। এজন্য রাস্তার উভয় পাশের অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নিতে অবৈধ দখলদারদের নোটিশ দেওয়া হয়। টানা বেশ কয়েক দিন মাইকিংও করা হয়।

বৃহস্পতিবার থেকে সওজ ঢাকা জোনের এস্টেট ও আইন কর্মকর্তা (উপ-সচিব) মাহবুবুর রহমান ফারুকীর নেতৃত্বে রাস্তার ২ পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়। শুক্রবার শহরের চৌরাস্তায় জামে মসজিদের মার্কেট এবং জজকোটের সীমানা প্রাচীর বুলডোজার মেশিন দিয়ে গুঁড়িয়ে দেয়।

এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মুহম্মদ মুখলেছুর রহমান জানান, উচ্ছেদ কার্যক্রমে অনেকেই নিজ দায়িত্বে তাদের স্থাপনা সরিয়ে নিয়েছেন। যারা এখনও অবৈধ স্থাপনাগুলো সরায়নি তাদের অবৈধ স্থাপনাগুলো উচ্ছেদ করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, চার লেন রাস্তা নির্মাণের জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগ ইতোমধ্যে কার্যাদেশ আহ্বান করে এবং ঢাকার সিপিসিএল নামে একটি প্রতিষ্ঠান চার লেন রাস্তা নির্মাণের কার্যাদেশ পায়। আগামী দেড় বছরের মধ্যে কাজটি শেষ করতে হবে। ৫৬ কোটি ৫৫ লাখ ৩১ হাজার ২২২ টাকা সর্বনিম্ন রেট দিয়ে সিপিসিএল কাজটি পায়।
সওজের এ উচ্চেদ অভিযানে মুষ্টিমেয় লোক অসন্তোষ হলেও বেশিরভাগই সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। সাধারণ জনতা ব্যক্তি বা গোষ্ঠিকে সন্তুষ্ট করতে রাস্তা এদিক-ওদিক সরিয়ে না নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক ও জনপথ সওজ বিভাগের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছে। গত ৩দিন ধরেই শহরের স্টেশন রেড় এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছে সওজ ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য