মালদ্বীপ সংকটের মধ্যে পূর্ব ভারত মহাসাগরে ১১টি যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করেছে চীন। চীনের নিউজ পোর্টাল সিনা ডট কম ডট সিএন এ খবর দিয়েছে। মালদ্বীপে যখন সাংবিধানিক সংকট চলছে এবং দেশটিতে হস্তক্ষেপের জন্য সাবেক প্রেসিডেন্ট নাশিদ ভারতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তখন চীন এই পদক্ষেপ নিল।

চীনা নিউজ পোর্টাল জানিয়েছে, ডেস্ট্রয়ারের একটি বহর এবং অন্তত একটি ফ্রিগেট, ৩০ হাজার টনের একটি উভচর ট্রান্সপোর্ট ডক এবং তিনটি সাপোর্ট ট্যাংকার ভারত মহাসাগরে ঢুকেছে। তবে মালদ্বীপ সংকটের কারণে চীনের এসব যুদ্ধজাহাজ সেখানে মোতায়েন করা হয়েছে কিনা তা পরিষ্কার করে নি নিউজ পোর্টালটি।
মালদ্বীপের রাজধানী মালের কাছে চীন নির্মাণ করছে একটি মৈত্রী সেতু

কেন এসব জাহাজ মোতায়েন করা হলো তার কোনো কারণও উল্লেখ করে নি নিউজ পোর্টাল। এছাড়া, কবে জাহাজ মোতায়েন করা হয়েছে এবং কতদিন থাকবে তাও বলা হয় নি। এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয় নি চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

চীনের ‘ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড’ কর্মসূচির প্রতি সমর্থন দিয়ে মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন বেইজিংয়ের সঙ্গে চুক্তি সই করার পর মালদ্বীপের ভেতরে প্রভাব বিস্তার করা নিয়ে চীন ও ভারতের মধ্যকার প্রতিযোগিতা প্রকাশ্য রূপ লাভ করে। মালদ্বীপের সঙ্গে দীর্ঘদিন থেকে ভারতের রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা সম্পর্ক রয়েছে। এ অবস্থায় দেশটিতে চীনের বেড়ে চলার প্রভাব নস্যাৎ করতে চায় ভারত।

শুক্রবার চীনা পিপল’স লিবারেশন আর্মি তাদের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ওয়েবোতে পূর্ব ভারত মহাসাগরে উদ্ধার প্রশিক্ষণের মহড়া সংক্রান্ত কিছু ছবি ও খবর প্রচার করেছে। মালিদ্বীপের রাজনৈতিক সংকট স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত মালদ্বীপ সফর এড়িয়ে চলতে চীনা নাগরিকদেরকে পরামর্শ দিয়েছে বেইজিং। গত ৫ ফেব্রুয়ারি মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইয়ামিন দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য