দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ভগবান শ্রীরামকৃষ্ণদেবের ১৮৩তম জন্মতিথি উৎসব উপলক্ষে রামকৃষ্ণ আশ্র ও রামকৃষ্ণ মিশন দিনাজপুর আয়োজিত ৩ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের সমাপনী দিনে বিকাল ৫টায় স্বামী বিবেকানন্দের শিক্ষাচিন্তা শীর্ষক ধর্ম সভা অনুষ্ঠিত হয়।

রামকৃষ্ণ মিশন ও বেলুর মট ভারত এর মহারাজ শ্রীমৎ স্বামী বিবেকাত্মানন্দজী মহারাজ এর সভাপতিত্বে সম্মানীত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু, ময়মনসিং থেকে আগত ড. শ্রী বিশ্বজিৎ ভাদুরী, এলজিইডি দিনাজপুর অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলী সুশীল কুমার দাস, নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ খলিলুর রহমান, ঠাকুরগাঁও রামকৃষ্ণ সেবাশ্রমের শ্রী প্রফুল্ল রায়।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক (দর্শন বিভাগ) ড. মাসুদুল হক। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন দিনাজপুর রামকৃষ্ণ আশ্রম ও রামকৃষ্ণ মিশনের অধ্যক্ষ স্বামী অমেয়াত্মনন্দ মহারাজ। বক্তারা ধর্মী সভায় বলেন, স্বামী বিবেকনন্দ শিক্ষার উন্নয়নে আদর্শ মানদন্ড দাঁড় করানোর চেষ্টা করেছিলেন।

তিনি বেদান্ত চিন্তার মাধ্যমে শিক্ষার প্রসার ঘটিয়েছিলেন। তিনি জাত-পাত, দরিদ্র মানুষের শিক্ষার আলো জ্বালাতে একটি মডেল শিক্ষা পদ্ধতি প্রতিষ্ঠিত করতে চেয়েছিলেন। যুগোপযোগী শিক্ষা দ্বারা মানুষকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে চেয়েছিলেন। শিক্ষার আলো জ্বালিয়ে মনের অন্ধকার ঘুচিয়ে দেওয়ার কথা স্বামী বিবেকানন্দ বলেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য