আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে অভিনব কায়দায় টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে দুই ইরানী নাগরিককে থানা পুলিশ আটক করেছে। রোববার বিকেলে ইরানী নাগরিক আমরুল ও মরিয়মকে তাদের প্রাইভেট কারসহ আটক করে।

থানা সূত্র জানায়, পুরাতন কাগজ ও ভাংরি মালামাল কেনার জন্য বগুড়া জেলার কাহালু উপজেলার ওসমান আলী মন্ডলের ছেলে মহাজন জিয়াউর রহমান দুপুর ১টার দিকে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের পাশে কোমরপুর হাটে রফিকুল ইসলামের দোকানে অবস্থান করে।

এসময় একটি সিলভার কালারের প্রাইভেট নিয়ে ইরানী নাগরিক আমরুল ও মরিয়ম দোকানের সামনে দাড়িয়ে ১ হাজার নোট দেখায় এবং তদের ভাষায় এলোমেলো ভাবে কথা বলতে থাকে। বিদেশী নাগরিক হওয়ায় মহাজন জিয়াউরসহ পাশে থাকা অন্যান্য লোকজন ভাবে হয়ত বা টাকা খুচরা নিতে চাচ্ছে।

খুচরা টাকা দেয়ার জন্য মহাজন জিয়াউর একশত টাকার ১০ হাজার টাকার বান্ডিল ও ১ লক্ষ টাকার বান্ডিল বের করে। টাকা বের করার সাথে ইরানী নাগরিকদ্বয় তার হাত থেকে ১ লক্ষ টাকার বান্ডিলের পিন খুলে ৬০ হাজার টাকা নিয়ে বাকী ৪০ হাজার টাকা দোকানের সামনে ছড়িয়ে-ছিঁটিয়ে দিয়ে দ্রুত প্রাইভেট কার নিয়ে গোবিন্দগঞ্জ অভিমুখে পালিয়ে যাচ্ছিল। ঘটনাস্থলে অবস্থানরত লোকজন তাদের পিছু পিছু ধাওয়া করে এবং পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশ ওই নাগরিকদের ধাওয়া করে গোবিন্দগঞ্জ উত্তর বাসষ্ট্যান্ডে গিয়ে প্রাইভেট কারের চাকা পামচার হওয়ায় স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ তাদেরকে প্রাইভেট কারসহ আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশ তাদের কাছে বেশ কিছু ডলার, টাকা ও পাসপোর্ট উদ্ধার করে।

গোবিন্দগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান পিপিএম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য