আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি, সমৃদ্ধি ও আল্লাহর রহমত কামনায় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে লালমনিরহাটের কালেক্টরেট মাঠে শুরু হওয়া ৩ দিনব্যাপী জেলা ইজতেমা শেষ হয়েছে।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শেষ হয়। কাকরাইল মসজিদের মুরুব্বি মওলানা রবিউল হাসান আখেরি মোনাজাত করান।

বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজ শেষে আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া এ ইজতেমায় রংপুর বিভাগের বিভিন্ন জেলার হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লি ইজতেমায় অংশ নেয়। দেশের স্বনামধন্য ইসলামি ব্যক্তিরা ইজতেমায় বয়ান করেন।

বয়ান শুনতে শুধু উত্তাঞ্চলের মসুল্লিরা নয়, রাজধানীর কাকরাইল মসজিদ থেকে আসেন তাবলিগের মুরব্বীরা। এছাড়া আসে ভারতের অন্ধপ্রদেশ ও রাশিয়ার কিরকিস্থান থেকে তাবলিগি জামায়াত।

ইজতেমার জিম্মাদার নেতৃত্বে কমিটি ও স্বেচ্ছাসেবকসহ জেলা পুলিশ বাহিনীর পক্ষ থেকে নেয়া হয় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। দেশবাসীসহ বিশ্বের মঙ্গল কামনা করে ২০ মিনিটের আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে জেলার সব শ্রেণির মানুষের ঢল নামে।

এর আগে শুক্রবার জুম্মার নামাজে মুসল্লির সংখ্যা বাড়ায় পাশের সোহরাওয়ার্দী মাঠেও প্যান্ডেল করা হয়। লালমনিরহাট পুলিশ এসএম রশিদুল হক জানান, “কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শেষ হয়েছে ইজতেমা।”

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য