ভেঙে গেলো হলিউড অভিনেত্রী জেনিফার অ্যানিস্টন ও চিত্রনাট্যকার-অভিনেতা জাস্টিন থেরক্সের সংসার। আড়াই বছর এক ছাদের নিচে থাকার পর আলাদা হয়ে গেছেন তারা। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিয়েবিচ্ছেদ সংক্রান্ত তাদের বক্তব্য প্রকাশ করেছে অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস।

এদিকে এই সংসার ভাঙার পেছনে হলিউড হার্টথ্রব ব্র্যাড পিটকে দায়ী করা হচ্ছে। তিনি অ্যানিস্টনের সাবেক স্বামী। হলিউডের আরেক অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়ায় তিনি এখন একা। ভক্তরা দুইয়ে দুইয়ে চার মিলিয়ে মনে করছেন, পিটের হাতছানিতে সাড়া দিয়েই থেরক্সের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে গেছেন অ্যানিস্টন। সব মিলিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জোলি ও অ্যানিস্টনের ভক্তরা ভাগ হয়ে গেছেন।

জানা গেছে, গত বছরের শেষ প্রান্তে এসে ছাড়াছাড়ির সিদ্ধান্ত নেন অ্যানিস্টন ও থেরক্স। পারস্পরিক আলোচনা করেই আলাদা হয়েছেন বলেও জানান তারা। দু’জনে উল্লেখ করেছেন, এ ঘটনা নিয়ে যেন বেশি কানাঘুষা না হয় সেজন্য নিজেরাই বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেন। তবে একে অপরকে বন্ধুত্ব বজায় রাখার আশ্বাস দিয়েছেন তারা।

২০১২ সালে ‘ওয়ান্ডারলাস্ট’ ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেন অ্যানিস্টন ও থেরক্স। এর সুবাদে তাদের সখ্য গড়ে ওঠে। তারা আংটিবদল করেন ওই বছরের আগস্টে। এর ঠিক তিন বছর পর ২০১৫ সালের আগস্টে তাদের বিয়ে হয়। তবে এই সংসারে কোনও সন্তান নেই।

জেনিফার অ্যানিস্টন ও জাস্টিন থেরক্স
৪৬ বছর বয়সী থেরক্স ‘স্টার ওয়ারস: দ্য লাস্ট জেডাই’ ছবিতে স্বল্প উপস্থিতির চরিত্রে অভিনয় করেন। এ বছর আসবে তার অভিনীত কয়েকটি ছবি। ‘ট্রপিক থান্ডার’ (২০০৮), ‘আয়রন ম্যান টু’ (২০১০) ও ‘জুল্যান্ডার টু’ (২০১৬) ছবিগুলোর চিত্রনাট্যকার তিনি।

ব্র্যাড পিটের সঙ্গে ২০০০ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত সংসার করেছেন ৪৯ বছর বয়সী অ্যানিস্টন। বিচ্ছেদের পর জোলির সঙ্গে ঘর বাঁধেন পিট। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে তাদেরও ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে।

‘ফ্রেন্ডস’ টিভি সিরিজের সুবাদে খ্যাতি পাওয়ার পর হলিউডে জায়গা করে নেন অ্যানিস্টন। তার ছবির তালিকায় আছে ‘হরাইবল বসেস’, ‘অফিস ক্রিসমাস পার্টি’, ‘কেক’, ‘মার্লে অ্যান্ড মি’ প্রভৃতি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য