দিনাজপুর শহরে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজী করছে। এই হাতির কারণে শহরে যানজোট বাড়ছে। বিড়ম্বনায় পড়েছে শহরের ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ।

গতকাল বৃহস্পতিবার হাতি তার শুড়দিয়ে এমন ভাবে মানুষকে ধরছে ও যানবাহন আটক করছে যে ইচ্ছার বিরুদ্ধে হাতিকে টাকা দিতে বাধ্য হচ্ছে।

দিনাজপুর শহরে কেনা কাটা করতে আসা মোছাঃ শাবনুর আক্তার জানায়, তিনি হাতিকে ১০ টাকা করে দিতে বাধ্য হয়েছেন। কারণ হাতি তার শুড়দিয়ে চেপে ধরছে।

১০ টাকার কম দিলে হাতি তা গ্রহণ করছেনা। ১০টাকা দিলে হাতিটি টাকা নিয়ে ছেড়ে দিয়ে তার পিঠের উপরে বসে থাকা মাহুদকে শুড় উচিয়ে টাকা দিয়ে দিচ্ছে। যা চাঁদাবাজীর সামিল।

শহরের বাহাদুর বাজার এলাকার ব্যবসায়ী আসাদ জানায়, হাতি দোকানের সামনে এসে দাড়ালে ক্রেতারা ভয়ে দোকানে ঢুকতে সাহস পায়না। এ কারণে বিড়ম্বনা এড়াতে আমরা বাধ্য হয়ে হাতির কাছে টাকা দিয়ে দেই, যাতে করে হাতি তাড়াতাড়ি দোকানের সামনে থেকে চলে যায়।

এছাড়াও হাতি শহরে প্রবেশ করে আরো যানজোট বাড়িয়ে দিচ্ছে। ভোগান্তিতে পড়ছে মানুষ। প্রশাসন থেকেও কোন বাধা দেয় না। ফলে তারা যত্রতত্র বিচরন করে প্রতিনিয়ত চাদাবাজি করছে।

উল্লেখ্য, দিনাজপুর সদর উপজেলার চেরাডাঙ্গি মেলায় বিভিন্ন সার্কাস দলের এসব হাতি আনা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য