হাইতিতে কর্মীদের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠার পর অক্সফামের অভ্যন্তরে চলমান রীতি ও সংস্কৃতি তদন্ত করতে একটি স্বাধীন কমিশন গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক দাতব্য সংস্থাটি। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।

গত সপ্তহাহে ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমসের খবরে ২০১০ সালে হাইতির ভূমিকম্পে দাতব্য সাহায্য নিয়ে যাওয়া অক্সফাম কর্মীদের বিরুদ্ধে যৌন কর্মী ব্যবহারের অভিযোগ আনে। এরপর সংস্থাটি ২০১১ সালে অভ্যন্তরীন তদন্তে ওই ঘটনার প্রমাণ পাওয়ার কথা জানিয়ে ক্ষমাপ্রার্থনা করে।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে অক্সফাম জানিয়েছে, যৌন অসদাচরণ, স্বচ্ছতা এবং সংস্কৃতির পরিবর্তন খতিয়ে দেখতে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হবে। এতে থাকবেন, অক্সফামের রেকর্ড ও কর্মীদের কাছে সহজগম্য নারী অধিকার বিশেষজ্ঞ, সহযোগী এবং কমিউনিটি পর্যায়ের সমর্থক।

ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অতীতে অথবা বর্তমানে অক্সফামে অসৎ, নকল অথবা অবিশ্বস্ত রেফারেন্স ব্যবহার করে সংস্থায় ঢোকা বন্ধ করতে একটি বৈশ্বিকভাবে প্রচলিত ডাটাবেস তৈরি করা হবে। এছাড়া সংস্থাটির সেফগার্ডিং প্রক্রিয়ায় বিনিয়োগ বাড়ানোরও ঘোষণা দেওয়া হয়েছে ওই বিবৃতিতে।

এছাড়া হাইতির ঘটনা তদন্তে ২০১১ সালের অভ্যন্তরীণ তদন্ত প্রতিবেদন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব প্রকাশের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সংস্থাটি। তবে এক্ষেত্রে নিপরাপরাধ প্রত্যক্ষদর্শীদের সুরক্ষার বিষয়টি বিবেচনার পরই তা প্রকাশ করা হবে হবে বলে জানায় সংস্থাটি। ওই বিবৃতিতে জানানো হয়েছে ওই ঘটনরায় মূল অভিযুক্তের নাম এরইমধ্যে হাইতির কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য