দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে কলেজ অফিস কক্ষে প্রবেশ করে অফিস ভাংচুর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষকে পিটিয়ে গুরুতর আহত ও চাঁদাবাজি মামলা পলাতক আসামী যুবলীগ সভাপতি হাসানুজ্জামান রুপম (৩৭) তার ভাই যুবলীগ নেতা রোকনুজ্জামান রন্টি ( ৩৫) কে আটক করেছে দিনাজপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

দিনাজপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মধুসূধন রায়ের নেতৃত্বে ১৩ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে এক অভিযানকালে তাদের আটক করা হয়। ১৪ ফেব্রুয়ারী বুধবার পিবিআই আদালতের মাধ্যমে আটক ২ যুবলীগ নেতাদের জেলা কারাগারে প্রেরন করেছে।

আটক হাসানুজ্জামান রুপম পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার চিলাহাটি ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ও যুবলীগ কর্মী রোকনুজ্জামান রন্টি উভয়ই উপজেলার পূর্ব টোকরাভাষ প্রধানপাড়া গ্রামের জহুরুল হকের ছেলে।

দিনাজপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মধুসূধন রায় জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নিজবাড়ী থেকে দিনাজপুর পিবিআই ক্ষমতাসীন দলের দুই প্রভাবশালী যুবলীগ নেতাকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন পিবিআই স্বাধীনভাবে তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিকে খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসে। অপরাধী যত বড়ই প্রভাবশালী হোক না কেন? আইনের ঊর্ব্ধে কেউ না।

মামলার বাদি দিলবাহার আলী জানায়, অনেক দিন পর হলেও দুই অপরাধী রুপম ও রন্টি আটক হওয়ায় এলাকায় স্বস্তির বাতাস বইছে। দিনাজপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল মান্নান জানান, পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলাধীন ভাওলাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দিলবাহার আলীকে গত ২২ই ফেব্রুয়ারী ২০১৭ ইং তারিখে কলেজ প্রাঙ্গনে ছাত্রছাত্রী সামনে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

দেবীগঞ্জ থানায় ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দিলবাহার আলী বাদি হয়ে গত ৩রা মার্চ ২০১৭ইং তারিখে যুবলীগ নেতা রতন (৩৫), রন্টি (৩৫), বাপ্পী (৩০), মানিক হোসেন (৩১), সোহেল (৩০), রুপম (৩৭), ও ইউনুছ আলী (৪৫) বিরুদ্ধে হত্যার উদ্দেশ্যে গুরুতর আহত ও চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য