ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ডক্টরস পয়েন্ট ও চৌধুরী ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামে একটি বে-সরকারী ক্লিনিক বেদখল হওয়ার সাত দিন পর, আজ বুধবার বেলা ২ টায় পুলিশ প্রসাশনের মাধ্যমে ফিরে পেয়েছে ক্লিনিকের মালিক। এরই মধ্যে ক্লিনিক থেকে নগদ অর্থসগ ১৬ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে, জবর দখল কারীকা।

ডক্টর পয়েন্ট ও চৌধুরী ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক ডাঃ নুর আলম চৌধুরী জয়, যায়যায়দিকে বলেন, গত ৯ ফেব্রুয়ারী ক্লিনিকের পুর্বের মালিক, রফিক মিয়া একদল সন্ত্রাসী যুবকসহ হঠাৎ করে তার ক্লিনিকে আক্রমন করেন এবং তার লোকজনকে ক্লিনিক থেকে বের করে দিয়ে, ক্লিনিকটি দখল করেন। এই ঘটনায় তিনি ফুলবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করলে, থানা পুলিশ গত ১০ ফেব্রæয়ারী অবৈদ্য দখলদার রফিককে আটক করে ক্লিনিকটিতে তালা দেয়। এর পর উভায় পক্ষের কাগজপত্র যাছাই করে গতকাল বুধবার বেলা ২ টায় স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিদের সামনে ক্লিকিকের মালিক ডাঃ নুর আলম চৌধুরী জয় এর নিকট দখল বুজিয়ে দেন পুলিশ।

ক্লিনিকের মালিক নুর আলম চৌধুরী জয় বলেন ক্লিনিকটি দখল পাওয়ার পর দেখি ক্লিকিরে ফিজিও থেরাপির আতুপাঞ্চা মেশিন, আলট্রাস্নোগ্রাম মেশিন, এনাটিগ্রাম মেশিন যার বাজার মূল্য ১৫ লাখ টাকাসহ ক্লিনিকে থাকা নগদ ৮০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে গেছে জবর দখলকারীরা।

ডাঃ নুর আলম চৌধুরী জয় আরো বলেন গত ২০১৬ সালের আগষ্ট মাসে ক্লিনিকের ভবনটি পুর্বের মালিক রফিকুল ইসলামের নিকট খরিদ করে ক্লিনিক করেছেন। এর পরেও রফিকুল ইসলাম বারবার ভবনটি আমাকে ছেড়ে দিতে বলে। এরই মাঝে গত ৯ ফেব্রুয়ারী একদল সন্ত্রাসী যুবকে নিয়ে এসে ক্লিনিকটি জোর পুর্বক দখল করে।

ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাসিম হাবিব বলেন ক্লিনিকটির জায়গার মালিকানা নিয়ে উভায় পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ লাগার উপক্রম হওয়ায়, ক্লিনিকটি পুলিশ দখলে নেয। এরপর উভায় পক্ষের জাগজপত্র যাছাই করে ধেখা যায়।

এই জায়টি রফিকুল ইসলাম, বর্তমান মালিক ডাঃ নুর আলম চৌধুরীর নিকট বিক্রি করেছে। সেই মোতাবেক বর্তমান মালিক জায়গার লিজ নবায়নকরাসহ হালসন পর্যন্ত তার নামে খাজনা দেয়া আছে, এই কারনে ক্লিনিকটি বর্তমান মালিক ডাঃ নুর আলম এর নিকট বুজিয়ে দেয়া হল।

এদিকে রফিকুল ইসলাম বলেন ক্লিনিকটি বর্তমান মালিক ডাঃ নুর আলমের নিকট ভাড়া দিয়েছিলে, কিন্তু ডাক্তার তার নিজের নামে কাগজ করে নিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য