দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিকেশন (পিবিআই) ধর্ষন ও এসিড নিক্ষেপ মামলা পলাতক তিন আসামীকে আটক করেছে।

বুধবার ভোরে ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুর উপজেলার ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের মনসুর রহমানের বাড়ী থেকে তিন জনকে আটক করে পিবিআই দিনাজপুর। আটক ১নং আসামী মামুনুর রশিদ (২৫) ও ২য় আসামী আব্দুল কুদ্দুস।

তারা উভয়ই ঠাকুরগাও জেলার হরিপুর উপজেলার ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের মনসুর রহমানের ছেলে ও ফরহাদ আলম ঠাকুরগাও জেলার হরিপুর উপজেলার খোলড়া গ্রামের আলাউদ্দীন মাষ্টারের ছেলে ।

মামলা সুত্রে জানা যায় , ঠাকুরগাও জেলার হরিপুর উপজেলার ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের মনসুর রহমানের ছেলে মামুনুর রশিদ মামুন (২৫) সাথে এই গ্রামের রুমি আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক হয়। প্রেমের সুত্র ধরে প্রেমিক মামুন প্রেমিকা রুমি আক্তারকে বিবাহের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষন করে।

এক পর্যায়ে প্রেমিকা রুমি আক্তার বিবাহের জন্য চাপ দেয়। প্রেমিক মামুন রুমি আক্তারকে বিবাহ করতে অস্বীকার করে। প্রেমিকা রুমি আক্তার উপান্তর না পেয়ে প্রেমিক মামুনের বিরুদ্ধে একটা ধর্ষন মামলা দায়ের করে। পুলিশ ধর্ষনের ঘটনা সত্যতা পেয়ে প্রেমিক মামুনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট প্রদান করে।

পরবতীতে আসামী মামুন প্রেমিকা রুমি আক্তারকে ধর্ষণ মামলা উঠানোর জন্য বিভিন্ন ভাবে চাপ সৃষ্টি করে। ধর্ষন মামলা উঠিয়ে নিতে রুমি আক্তার অস্বীকার করলে এই ক্ষোভে প্রেমিক মামুন, আব্দুল কুদ্দুস ও ফরহাদ আলম ২১ নভেম্বর ২০১৬ইং তারিখে হরিপুর উপজেলা সদরের টিএন্ডটি অফিসের সামনে রুমি আক্তারের মায়ের সম্মুখে রুমি আক্তারকে এসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে রুমি আক্তারের মা বাদী হয়ে এসিড অপরাধ দমন আইনে মামলা দায়ের করে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, দিনাজপুর পিবিআই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মধুসুদন রায় নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই হানিফ, এসআই মান্নান, এসআই কামরুজ্জানের সঙ্গীয় ফোর্সসহ পলাতক তিন আসামীকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আটক তিন জনকে আদালতে প্রেরন করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য