আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে দাখিল পরীক্ষার অতিরিক্ত উত্তরপত্রসহ একজনকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে কামদিয়া থেকে ২৯টি উত্তরপত্রসহ আয়েজাবাদ গ্রামের ওয়াহেদুল মিয়ার ছেলে কাজলকে (৩২) আটক করে পুলিশ।

কাজল তার কাজল ডিজিটাল স্টুডিও এন্ড ফটোস্ট্যাট দোকানের ভিতরে অতিরিক্ত উত্তরপত্র লেখার সময় পুলিশ তাকে হাতে-নাতে আটক করে। এসময় তার কাছ থেকে ২৯টি ফাঁকা আতিরিক্ত উত্তরপত্র উদ্ধার করা হয়।

জানা গেছে, কাজল ডিজিটাল স্টুডিও এন্ড ফটোস্ট্যাট দোকানের ভিতরে কাজল পরীক্ষা চলাকালীন সময় অতিরিক্ত উত্তরপত্রে প্রশ্নপত্র আউট করে লিখে তা আবার পরীক্ষা হলে নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থীর কাছে সরবারহত করতো।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার দাখিল পরীক্ষার বাংলা ১ম পত্র পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান পিপিএম-এর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে ২৯টি অতিরিক্ত উত্তরপত্রসহ কাজলকে হাতে-নাতে আটক করা হয়।

গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান পিপিএম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। কাজলের সাথে আরো যারা জড়িত তাদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

অতিরিক্ত উত্তরপত্র কেন্দ্রের বাহিরে কিভাবে গেলো এই প্রশ্নের জবাবে দাখিল কেন্দ্র গোবিন্দগঞ্জ-২ কামদিয়া দার“ল উলমু সিদ্দিকীয়া আলীম মাদরাসা সচিব শহরগছি আলীম মাদরাসার অধ্যক্ষ আবুল কাশেম জানান, কিভাবে অতিরিক্ত উত্তরপত্র কেন্দ্রের বাহিরে গেলো তা তিনি অবগত নন। তিনি এই অতিরিক্ত উত্তরপত্র বাহিরে দেয়ার সাথে জড়িত নয়। কেন্দ্রের সাথে সংশি­ষ্ট কোন শিক্ষক জড়িত থাকতে পারে।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শীলাবর্ত কর্মকার জানান, অতিরিক্ত উত্তরপত্র কিভাবে কেন্দ্রের বাহিরে গেলো তা তদন্ত চলছে। তদন্তে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে তাদের বির“দ্ধে বিভাগীয় ও আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য