ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক তারিক রামাদানের জামিন নামঞ্জুর করেছে ফ্রান্সের একটি আদালত। চারদিন আগে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সমকালীন ইসলামিক গবেষণা বিষয়ের অধ্যাপক তারিক রামাদানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেন দুই নারী। এরপর কয়েক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শুক্রবার তাকে গ্রেফতার করে ফরাসি পুলিশ।

ফ্রান্সের দুই নারী কয়েক মাস আগে তারিক রামাদানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তোলেন। তবে ৫৫ বছর বয়সী রামাদান এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। অভিযোগকারী এক নারী হিন্দা আয়ারির বিরুদ্ধে মানহানির মামলাও করেছেন তারিক।

গত বছর বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের নারীরা নিজেদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া যৌন নির্যাতন বা হয়রানির ঘটনাগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লেখা শুরু করেন। হ্যাশট্যাগ মি টু হিসেবে পরিচিত এই আন্দোলন চলাকালে অধ্যাপক রামাদানের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে ওই দুই নারী। রামাদানের বিরুদ্ধে অভিযোগে বলা হয়, তিনি ২০০৯ ও ২০১২ সালে কনফারেন্স শেষে হোটেল কক্ষে ওই দুইজনকে ধর্ষণ করেন।

এই আন্দোলন শুরু হওয়ার পর ফ্রান্সে গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রামাদানই সবচেয়ে স্বনামধন্য ব্যক্তি। তাকে গত সপ্তাহে দুই দিন জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। অভিযোগ গঠনের পর শুক্রবার তাকে গ্রেফতার করা হয়। এই প্রভাবশালী ইসলামি চিন্তাবিদকে গ্রেফতারের পর ফ্রান্সের মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে ক্ষোভ দেখা ‍দিয়েছে। রামাদান একজন নিয়মিত টিভি বিতার্কিক। ফেসবুকে তার ২০ লক্ষাধিক ফলোয়ার রয়েছে।

গত সপ্তাহে রামাদানকে অভিযোগ উত্থাপনকারী এক নারীর সামনে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তবে তার আইনজীবী দাবি করেছেন, ওই দুই নারী তাকে সম্মিলিতভাবে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য