আলিবাগের বাংলো নিয়ে বেকায়দায় শাহরুখ খান। তার এই বাংলোকে ‘বেনামি’ সম্পত্তির তকমা দিয়ে বাজেয়াপ্ত করেছে আয়কর বিভাগ।

মুম্বাইয়ের আয়কর বিভাগ শাহরুখ খানের আলিবাগের বাংলোয় নথিভুক্ত ‘দেজা ভ্যু’ ফার্মস প্রাইভেট লিমিটেডকে প্রাথমিক ভাবে ৯০ দিনের জন্য বাজেয়াপ্ত করল।

গত ডিসেম্বরে ‘প্রহিবিশন অফ বেনামি প্রপার্টি ট্রানজাকশনস অ্যাক্ট’ (পিবিপিটি) এই ফার্মকে বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিয়েছিল আয়কর বিভাগ।

এনডিটিভি সূত্রে খবর, আলিবাগে শাহরুখের এই বাংলোর আনুমানিক মূল্য প্রায় ১৫ কোটি রুপি । সমুদ্রসংলগ্ন এই বাংলোর আয়তন ১৯ হাজার ৯৬০ বর্গমিটার । এই বাংলোয় রয়েছে সুইমিং পুল, বিচ এবং হেলিপ্যাড।

মুম্বাই আয়কর দপ্তরের আধিকারিকেরা জানিয়েছেন, এই বেনামি আইনের ২৪ নম্বর ধারা অনুযায়ী, কোনও ব্যক্তি বা উপভোক্তা বেনামি সম্পত্তির আইনভঙ্গ করলে, তারা ৯০ দিনের জন্য সেই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিতে পারেন।

আয়কর দফতরের অভি‌যোগ, কৃষি খামার তৈরি করার জন্য শাহরুখ খামারবাড়ির জমিটি কিনেছিলেন। কিন্তু তার পরিবর্তে ওই জায়গায় একটি বিলাবহুল রিসর্ট বানিয়েছেন তিনি।

২০০৪ সালে কৃষিজমিটি কেনার সময় শাহরুখ এবং তার স্ত্রী গৌরী খানের নাম থাকলেও পরবর্তিতে ‘দেজা ভ্যু’ ফার্মস প্রাইভেট লিমিটেডের পরিচালক হিসেবে রমেশ ছিব্বা, সরিতা এবং নমিতা ছিব্বার নাম অন্তর্ভুক্ত হয় । সম্পর্কে তারা শাহরুখের শ্বশুর, শাশুড়ি ও শ্যালিকা ।

‘দেজা ভ্যু’ ফার্মস প্রাইভেট লিমিটেডের একমাত্র আয় এই পরিচালকদের দেওয়া শাহরুখেরই ৮ কোটি ৪৫ লক্ষ টাকার বন্ধকিহীন ঋণ ।

পিবিপিটি আইন অনুযায়ী প্রাথমিকভাবে বাজেয়াপ্ত হওয়া বেনামি সম্পত্তির অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সাত বছরের হাজতবাস এবং সম্পত্তির বর্তমান বাজারদরের শতকরা ২৫ শতাংশ পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে।

দোষী প্রমানিত হলে বেকায়দায় পড়ে যেতে পারেন শাহরুখ ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য