ভার্জিনিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের রিপাবলিকান সদস্যদের বহনকারী একটি যাত্রীবাহী ট্রেনের ধাক্কায় একটি আবর্জনাবাহী ট্রাকের এক কর্মী নিহত হয়েছেন।

বুধবার ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের একটি গ্রামীণ এলাকার রেল ক্রসিংয়ে ঘটনাটি ঘটে বলে কর্তৃপক্ষের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এ ঘটনায় ওই ট্রাকটিতে থাকা আরো একজন গুরুতর আহত হয়েছেন, তবে ট্রেনটিতে থাকা কোনো আইনপ্রণেতা বা ট্রেনটির কোনো কর্মী বড় ধরনের কোনো আঘাত পাননি বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের পরিবহন বিভাগ।

যুক্তরাষ্ট্রের যাত্রীবাহী রেল সার্ভিস আমট্রাক জানিয়েছে, দুর্ঘটনার পর ছোটখাট আঘাত পাওয়া ট্রেনটির দুই কর্মী ও তিন যাত্রীকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। মাথায় ধাক্কা খাওয়া আইনপ্রণেতা জ্যাসন লুয়িসকে পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে।

রয়টার্সকে লুয়িস বলেছেন, “ট্রাক চালকদের বিয়োগান্তক ঘটনার তুলনায় আমি বেশ ভাল আছি। দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আমাদের চিকিৎসক ও অন্যান্য যারা সহায়তা করেছেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। যে চালক মারা গেছেন, আমার মন তার পরিবারের সঙ্গে আছে।”

ট্রেনটি ওই আইনপ্রণেতাদের পশ্চিম ভার্জিনিয়ার হোয়াইট সালফার স্প্রিং এ নিয়ে যাচ্ছিল। সালাফার স্প্রিংয়ে একটি সম্মেলনে যোগ দেওয়ার কথা ওই আইনপ্রণেতাদের।

আমট্রাক জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল ১১টা ২০ মিনিটে ক্রোজেটের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

ভার্জিনিয়ার শার্লোটসভিল ও পশ্চিম ভার্জিনিয়ার হোয়াইট সালফার স্প্রিং শহরের মাঝে ছোট এই শহরটির অবস্থান।

স্বাস্থ্য পরীক্ষার পরে লুয়িস হাসপাতাল ত্যাগ করে হোয়াইট সালফার স্প্রিংয়ের দিকে রওনা দিয়েছেন বলে এক মুখপাত্র জানিয়েছেন।

সিনেটর বিল ক্যাসিডি (যিনি একজন ডাক্তার) জানিয়েছেন, তিনি ও অন্যান্য আইনপ্রণেতা যাদের মেডিকেল ট্রেনিং আছে জরুরি বিভাগের কর্মীরা না আসা পর্যন্ত আহতদের পরিচর্যা করেছেন।

দুর্ঘটনার সময় ট্রাকটি রেলক্রসিংয়ের ওপরে ছিল বলে জানিয়েছে আমট্রাক। দুর্ঘটনার পর গ্রহণ করা এক ভিডিওতে ট্রেনের ধাক্কায় ক্ষতিগ্রস্ত ট্রাকটি ও এর আশপাশাজুড়ে আবর্জনা পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

ওই ট্রেনটিতে কয়েকজন আইনপ্রণেতার স্ত্রী ও তাদের ছেলেমেয়েরাও ছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার পাল রায়ানও ট্রেনটিতে ছিলেন, কিন্তু সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতা মিচ ম্যাককনল ছিলেন না।

পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় জরুরি বিভাগের এক কর্মী জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার পরপরই আইন প্রয়োগকারী দল অস্ত্র তাগ করে ট্রেনটিকে ঘিরে ফেলে এবং সম্ভাব্য হামলাকারীর খোঁজে এলাকাটিতে তল্লাশি চালায়, ওই সময় আহতদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য