মোঃ লিহাজ উদ্দীন মানিক, বোদা (পঞ্চগড়) থেকেঃ পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার মাড়েয়া বামনহাট ্ইউনিয়নের করতোয়া নদীর আউলিয়ার ঘাটে সেতু নির্মাণের জন্য উচ্চ পর্যায়ের বিশেষজ্ঞ টিম পরিদর্শন করেছেন।

এতে দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর উপজেলা বাসীর প্রত্যাশা আউলিয়া ঘাটে সেতু নির্মাণের স্বপ্ন পূরণ হওয়ার সম্ভবনা দেখা দিয়েছে। জানা গেছে প্রায় ৬শ মিটার দৈর্ঘ্য এবং ১৮ মিটার প্রস্ত এ সেতু নির্মাণে সম্ভাব্য ব্যয় হবে শত কোটি টাকার উপরে।

দীর্ঘ প্রত্যাশিত আউলিয়ার ঘাটে সেতুটি নির্মাণ হলে উপজেলার সঙ্গে কয়েকটি ইউনিয়নের যোগাযোগ সহজ হবে এবং হাজার হাজার মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হবে। সেই সঙ্গে পঞ্চগড়, নীলফামারী ও লালমনিরহাট জেলার সঙ্গে যোগাযোগ সহজতর হবে, এবং অত্র এলাকার আর্থ সামাজিক অবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হবে।

সেতুটি নির্মাণে পরবর্তী ধাপগুলো দ্রুত বাস্তবায়নে গত ২৩ জানুয়ারি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর একটি বিশেষজ্ঞ টিম আউলিয়ার ঘাট এলাকায় হাইড্রোমরফলোজি পানি এবং নদীর গতি পথের অবস্থান নির্ণয় ও সেতু নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাই করেন।

বিশেষজ্ঞ দলটি প্রাথমিক পর্যায়ে সেতু নির্মাণের জন্য দুইটি সাইট সিলেকশন করেছেন। এর মধ্যে একটি বদেশ্বরী মন্দির থেকে সোজা পশ্চিমে, অপরটি বর্তমান ঘাট এলাকায় ওয়াই ডিজাইনের।

বিশেষজ্ঞ টিমের সদস্যরা হলেন, প্রফেসর ড. শাহজাহান মন্ডল, প্রফেসর ড. সুজিত কুমার বালা, প্রফেসর ড. জিএম তরিকুল ইসলাম। বিশেষজ্ঞ টিমের জরিপ কাজে উপস্থিত ছিলেন পঞ্চগড় এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মনিরুজ্জামান, উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মালেক মন্ডল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ ফারুক আলম টবি, মাড়েয়া বামনহাট ইউ’পি চেয়ারম্যান আবু আনছার মোঃ রেজাউল করীম শামীম, সাবেক ইউ’পি চেয়ারম্যান ওয়ালিউল ইসলাম মন্টু সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা।

এই সেতুটি নির্মাণ হলে সরকারের আরও একটি বড় উন্নয়ন যোগ হবে বিগত ৯ বছরের উন্নয়নের সাথে মনে করেছেন স্থানীয় জনগণ।

এ ব্যাপরে পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাডঃ নুরল ইসলাম সুজন দীর্ঘ দিন ধরে সরকারের উচ্চ মহলে প্রচেষ্টা চালিয়ে আউলিয়ার ঘাটে সেতু নির্মাণের ব্যাপক ভুমিকা রেখেছেন। এখনো তার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য