দিনাজপুর সংবাদাতাঃ রাষ্টীয় কোষাগার হতে পেনশনসহ বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা প্রদানের দাবীতে দিনাজপুর পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারিরা ২৮-৩০ জানুয়ারী তিন দিনের পূর্ণদিবস কর্মবিরতি মঙ্গলবার সমাপ্ত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারী) ৭২ ঘন্টা কর্মবিরতির সমাপনী দিনে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি কর্মসূচীর প্রতি একাত্বতা প্রকাশ করে অংশগ্রহণ করেন দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, প্যানেল মেয়র আহাম্মেদুজ্জামান ডাবলু ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর একেএম মাসুদুল ইসলাম মাসুদ। এ সময় কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাদের স্বাগত জানান।

এদিকে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারিদের কর্মবিরতির ফলে জরুরী দিনাজপুর পৌরসভায় সেবা নিতে আসা পৌর নাগরিকরা বিড়ম্বনায় পড়েন। এছাড়া কর্মবিরতির ফলে শহরের বাহাদুর বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে ময়লা-অবর্জনার স্তুম জমে দুর্গন্ধময় পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে পৌরবাসিকে চরম দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে।

কর্মবিরতির সমাপনী দিনে দিনাজপুর পৌরসভায় কর্মসূচীতে যোগ দেন বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েন (ইঅচঝ) কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. আব্দুল আলিম মোল্যার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল। কেন্দ্রীয় সভাপতিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান দিনাজপুর পৌরসভা শাখার নেতৃবৃন্দ।

পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারি এসোসিয়েশন দিনাজপুর পৌরসভা শাখার সভাপতি মো. মজিবর রহমান বাচ্চু’র সভাপতিত্বে সমাপনী দিনে সভায় একাত্বতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, প্যানেল মেয়র আহাম্মেদুজ্জামান ডাবলু। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারি এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. আব্দুল আলিম মোল্যা।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা ও দিনাজপুর পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম পাটোয়ারী, সহ-সাধারণ সম্পাদক সুজন শাহ, প্রচার সম্পাদক ইমরান আলী মোল্যা, কেন্দ্রীয় কমিটির সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং রংপুর বিভাগীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক দিনাজপুর পৌরসভার উপ-সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) মো. হাবিবুর রহমান, কেন্দ্রীয় কমিটির অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী বিষয়ক সম্পাদক ও দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি সহকারী প্রকৌশলী মো. রইচ উদ্দিন মিয়া, রংপুর বিভাগীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও পার্বতীপুর পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী মো. মিনারুল ইসলাম, বিরল পৌরসভার সচিব হরনন্দ রায়, জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও দিনাজপুর পৌরসভার উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. লাইছুর রহমান চৌধুরী, দিনাজপুর পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী (পানি) মীর তোফাজ্জল হোসেন, জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শামসুল রানা, প্রবীন সংগঠক মো. আমজাদ আলী, পার্বতীপুর পৌরসভা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. মশিউর রহমান, সেতাতগঞ্জ পৌরসভার নেতা মো. নুরে আলম, দিনাজপুর পৌরসভার নেতা মো. আব্দুল লতিফ, মো. রায়হান আলী, আব্দুর রাজ্জাক-১, মো. শরিফ, আব্দুর রাজ্জাক-৩, নার্গিস আরা, রুবি বেগম প্রমূখ।

সভায় দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সরকারের অন্যান্য বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রাষ্ট্রীয় কোষাগার হতে বেতন-ভাতা পেলে স্থানীয় সরকারের আওতাধীন পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বেতন-ভাতা পাবে না তা হতে পারে না। সরকারের এই দ্বৈতনীতি পরিহার করে অবিলম্বে পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারিদের বেতন-ভাতা ও পেনশন সুবিধা রাজস্ব তহবিল হতে প্রদানের দাবী জানান।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধান অতিথি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. আব্দুল আলিম মোল্যা বলেন, আমরা অহিংস আন্দোলন করছি। আজকের মধ্যে পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারিদের একদফা দাবী মেনে নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান। অন্যথায় আগামী শনিবার কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে বৈঠক হবে। ওই বেঠকে কঠোর থেকে কঠোরতম কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে বলে তিনি হুশিয়ারী দেন।

উল্লেখ্য, সারা দেশের ৩২৭টি পৌরসভার ৩২ হাজার ৫ শ’ কর্মকর্তা-কর্মচারী একযোগে ২৮-৩০ জানুয়ারী তিন দিন (৭২ ঘন্টা) পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য