ছবি শেয়ারিংয়ের ওয়েবসাইট ইনস্টাগ্রামে যুক্ত হলেন হলিউড হার্টথ্রব টম ক্রুজ। গত ২৬ জানুয়ারি এতে যোগ দেন তিনি। ২৪ ঘণ্টা না পেরোতেই ৭ লাখ ফলোয়ার হয়ে গেছে তার। ইনস্টাগ্রামে এসে মোটেও সময় নষ্ট করেননি অস্কারজয়ী এই তারকা! ‘মিশন: ইমপসিবল’ সিরিজের ষষ্ঠ কিস্তির নতুন দুটি স্থিরচিত্র পোস্ট করেছেন তিনি।

এর একটিতে আছে ক্ল্যাপারবোর্ড। এতে জানা গেলো ছবিটির নাম ‘মিশন: ইমপসিবল-ফলআউট’। স্থিরচিত্রটির ক্যাপশনে টম ক্রুজ লিখেছেন, ‘তৈরি হোন।’ অন্যটিতে দেখা যাচ্ছে, ৫৫ বছর বয়সী এই তারকা একটি হেলিকপ্টারের বাইরের অংশে ঝুলে আছেন। ‌ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘আমরা ষষ্ঠ মিশন ইমপসিবল নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি। আপনাদের আরও কিছু জানাতে মুখিয়ে আছি।’

ইনস্টাগ্রামে টম ক্রুজের সংক্ষিপ্ত জীবনীতে বলা হয়েছে, ১৯৮১ সাল থেকে চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত একজন অভিনেতা ও প্রযোজক।

‘মিশন: ইমপসিবল-ফলআউট’ ছবির কাজ করতে গিয়ে গত বছর গোড়ালিতে চোট পান টম ক্রুজ। এ কারণে শুটিং স্থগিত ছিল অনেকদিন। লন্ডনে এক ভবন থেকে আরেকটিতে লাফ দেওয়ার সময় আহত হন তিনি।

সিরিজের আগের পর্ব ‘মিশন: ইমপসিবল-রোগ নেশন’একটি উড়োজাহাজের বাইরে ঝুলতে দেখা গেছে টম ক্রুজকে। ওই ছবির মতো এবারও পরিচালনার দায়িত্বে আছেন ক্রিস্টোফার ম্যাককোয়ারি।

আগের পর্বের তারকা রেবেকা ফার্গুসন, সিমন পেগ, ভিং র‌্যামস, শন হ্যারিস, অ্যালেক ব্যাল্ডউইন এবারও থাকছেন। নতুন যুক্ত হয়েছেন হেনরি ক্যাভিল, ভ্যানেসা কার্বি, অ্যাঞ্জেলা ব্যাসেট ও সিয়ান ব্রুক। ফিরেছেন তৃতীয় পর্বের অভিনেত্রী মিশেল মোনাহান।

প্যারামাউন্ট পিকচার্সের পরিবেশনায় এ বছরের ২৭ জুলাই মুক্তি পাবে ‘মিশন: ইমপসিবল-ফলআউট’। এবারই প্রথম এ ফ্রাঞ্চাইজির কোনও ছবি দেখা যাবে থ্রিডিতে।

১৯৯৬ সালে ‘মিশন: ইমপসিবল’ ছবিতে আইএমএফ (ইমপসিবল মিশন ফোর্স) সদস্য ইথান হান্ট চরিত্রে প্রথমবার অভিনয় করেন টম ক্রুজ। ২০১৫ সালে মুক্তি পায় এ সিরিজের পঞ্চম পর্ব ‘মিশন: ইমপসিবল-রোগ নেশন’। অন্য ছবিগুলো হলো ‘মিশন: ইমপসিবল টু’ (২০০০), ‘মিশন: ইমপসিবল থ্রি’ (২০০৬), ‘মিশন: ইমপসিবল-গোস্ট প্রটোকল’ (২০১১)।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য