মানুষের জীবনের যে সময়টিকে কৈশর বা বয়ঃসন্ধিকাল বলে ধরা হয় তা সাধারণত ১৯ বছরে শেষ হয় বলে মনে করা হলেও এখন এ সময়সীমা ২৪ বছর পর্যন্ত পৌঁছে গেছে বলেই মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

তারা বলছেন, এখন কৈশরের মেয়াদকাল আসলে ১০ থেকে ২৪ বছর। অর্থাৎ, আজকাল বয়ঃসন্ধিকাল আগেভাগে ১০ বছর বয়সেই শুরু হয়ে চলছে অনেক বেশি সময় পর্যন্ত।

তরুণ ছেলে-মেয়েরা এখন অনেক দীর্ঘ সময় ধরে পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা বিয়ে করতে এবং সন্তান নিতে দেরী করছে। আর একারণেই কৈশরের সময়কাল বেড়ে যাচ্ছে বলে অভিমত বিজ্ঞানীদের।

ফলে মানুষের ‘প্রাপ্তবয়স্ক’ হওয়ার সময়টি নিয়ে প্রচলিত ধারণাও বদলে যাচ্ছে।

‘ল্যান্সেট চাইল্ড এ- এডোলেসেন্ট হেলথ জার্নালে’ বিজ্ঞানীরা তাদের এ গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন। এতে আইনকানুনগুলোকে যুগোপযোগী রাখার জন্য বয়ঃসন্ধিকালের সংজ্ঞা নতুন করে নির্ধারণ করা জরুরি বলে মত দিয়েছেন তারা।

তবে যুক্তরাজ্যের কেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বিশেষজ্ঞ এ ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, এতে করে তরুণদেরকে আরো বেশিদিনের জন্য শিশুতুল্য ভাবার ঝুঁকি থেকে যাবে।

বয়ঃসন্ধির শুরু
মানুষের মস্তিস্কের ‘হাইপোথ্যালামাস’ থেকে যখন হরমোন নিঃসরণ শুরু হয়, তখন থেকেই বয়ঃসন্ধি শুরু বলে মনে করা হয়। ওই হরমোন দেহের পিটুইটারি গ্ল্যান্ড এবং গোনাডাল গ্ল্যান্ডগুলোকে সক্রিয় করে তোলে।

সাধারণত ১৪ বছর বয়সেই মানুষের দেহে এ পরিবর্তনগুলো ঘটে। কিন্তু উন্নত দেশগুলোতে মানুষের স্বাস্থ্য ও পুষ্টির উন্নতির কারণে বয়ঃসন্ধিকাল শুরুর সময় নেমে এসেছে ১০ বছরে।
যুক্তরাজ্যের মতো শিল্পোন্নত দেশে গত দেড়শ’ বছরে মেয়েদের ঋতুমতী হওয়ার গড় বয়স আগের তুলনায় প্রায় চার বছর কমে এসেছে।

বেশি সময় নিয়ে দেহের বিকাশ
মানুষের শরীর এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি সময় ধরে বাড়ে। যেমন: মানুষের মস্তিস্ক এখন ২০ বছরের পরও বিকশিত হয়। এটি কাজও করে আগের চেয়ে বেশি দক্ষভাবে। তাছাড়া, অনেক মানুষের আক্কেল দাঁতও এখন ২৫ বছরের আগে গজায় না।

ফলে দেখা যাচ্ছে, বয়ঃসন্ধিকালের সংজ্ঞায় এর বয়সসীমা আরো বাড়ানোর অনেক যুক্তিই আছে।
জীবনের বড় পরিবর্তনগুলো দেরীতে হওয়া

মানুষ এখন অনেক বেশি বয়সে বিয়ে করছে এবং তাদের সন্তান নেয়ার বয়সও পিছিয়ে যাচ্ছে।
যুক্তরাজ্যের জাতীয় পরিসংখ্যান দফতরের হিসাবমতে, ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে ২০১৩ সালে পুরুষদের প্রথম বিয়ের গড় বয়স ছিল ৩২ দশমিক ৫ বছর এবং নারীদের ৩০ দশমিক ৬ বছর। ১৯৭৩ সালের তুলনায় এ হিসাবে প্রথম বিয়ের গড় বয়স প্রায় ৮ বছর বেশি।

বয়ঃসন্ধি নিয়ে গবেষণা চালানো বিজ্ঞানী দলের প্রধান গবেষক হচ্ছেন, অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে ‘সেন্টার ফর এডোলেসেন্ট হেলথ অ্যাট দ্য রয়েল চিলড্রেন্স হসপিটালের’ পরিচালক সুজান সয়্যার।
তিনি বলেন, দেরীতে সংসার এবং বাবা-মা হওয়া, অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে দেরী হওয়া– এসব কারণেই ‘বয়ঃসন্ধির’ সময়টা এখন অনেক বেড়ে গেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য