বিরলঃ সারা দেশের ন্যায় ২য় দিনের মতো রবিবার দিনাজপুরের বিরলে কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডাররা (সিএইচসিপি) চাকরী জাতীয় করণের দাবিতে অবস্থান কর্মসুচী পালন করেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে’র সামনে অবস্থান কর্মসুচী পালন করে ৩৩ জন সিএইচসিপি।

এদিকে কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারহারুন-অর রশীদ এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সাধারণ সম্পাদক মামনুর রশীদ, সিএইচসিপি আকরামুজ্জামান ফিরোজ ও মেরীনা আক্তার বানু। এসময় উপজেলার ৩৩টি সিএইচসিপি উপস্থিত ছিলেন।

অবস্থান কর্মসুচী’র জন্য ভোগান্তিতে পরেছেন জনসাধারণ। প্রচন্ড ঠান্ডায় শিশুরা ডায়রিয়া জনীত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। দরিদ্র জনগোষ্ঠির একমাত্র স্বাস্থসেবার ভরসা কমিউনিটি ক্লিনিক।

জ্বরের ঔষুধ নিতে আসা সাবিনা বলেন, আমরা গরিব মানুষ। ঠান্ডার কারণে জ্বর হয়েছে। এখানে বিনা মুল্যে ঔষুধ নেই। গত শনিবার ক্লিনিক বন্ধ ছিল। রবিবারও ঔষুধ নিতে পারিনাই। জ্বর কমছেনা। এখন ডাক্তার যে দেখাবো টাকা নেই। ক্লিনিক বন্ধ হওয়ায় আমি ঔষুধ নিতে পারিনাই। তাই সরকার যেন বন্ধ হওয়া ক্লিনিক গুলো খুলে দেয়।

কাহারোলঃ বাংলাদেশ কমিউনিটি হেল্থ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় দাবী আদায় বাস্তবায়ন কমিটির আহবানে সারাদেশের ন্যায় দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় সিএইচসিপি’র কর্মচারীগণ তাদের চাকুরী জাতীয়করণের দাবীতে অবস্থান কর্মসূচী পালন করছে।

২১ জানুয়ারী’১৮ ইং তারিখে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেন। কাহারোল উপজেলা সিএইচসিপি এসোসিয়েশনের সভাপতি পিযুষ কুমার রায় ও সম্পাদক লিটন দেবনাথ জানান, আমাদের দাবী আদায়ের লক্ষ্যে শান্তি পূর্ণ ভাবে আমরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-এ অবস্থান কর্মসূচী পালন করছি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য