আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: চাঁদাবাজির কৌশল পাল্টেছে। হাতিকে ঢাল বানিয়ে মানুষকে নিরুপায় করে চলছে অবাধে চাঁদাবাজি।

এ দৃশ্য দেখা গেছে, বিকেলে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার সুকানদিঘী বাজারে। সরেজমিনে দেখা যায়, বিভিন্ন গ্রাম, হাট-বাজার, রাস্তা-ঘাট এবং পথচারীদের কাছে হাতি দাড় করিয়ে ১০টাকা থেকে ১’শ/২’শ টাকা আদায় করছে। যদি কেউ টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানায় তাহলে হাতির মালিক হাতির মাধ্যমে জবরদস্তি করে অর্থ আদায় করছে।

হাতির নাম শুনে দেখতে আসা জনগণ মাফ পাচ্ছেন না এই হাতির মালিকের কাছে। তাই এই নীরব চাঁদাবাজির কাছে অসহায় হয়ে সহ্য করতে হচ্ছে এলাকা বাসিকে।

এলাকার উৎসুক জনগণের প্রশ্ন, যদি সার্কাস খেলার জন্য হাতিটিকে এ জেলায় আনা হয়, তাহলে জেলার গ্রাম অঞ্চলে কেন ? এটা হাতির সাথে থাকা মালিকের পক্ষে চাঁদাবাজি ছাড়া আর কিছুই না।

হাতির পিঠে থাকা ব্যক্তিটি বলেন, আমি এই হাতিটিকে একটি সার্কাস দলে খেলা দেখানোর জন্য এনেছি। কিন্তু সার্কাস খেলা এখনও শুরু হতে দেরী আছে। তাই এসব এলাকায় এসেছি। তবে অনেকে তার নাম জানতে চাইলেও তিনি তার নাম প্রকাশ করেনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য