বিরতির পর অভিনয়ে ফিরেই দারুণ ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন প্রয়াত নায়ক বুলবুল আহমেদের যোগ্য উত্তরসূরি ঐন্দ্রিলা আহমেদ। এরইমধ্যে তিনি দুটি নাটক এবং একটি টেলিফিল্মের কাজ শেষও করেছেন। তার ফেরার যাত্রায় শুরু হলো বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করা।

এই সময়ের মেধাবী বিজ্ঞাপন নির্মাতা অমিতাভ রেজার নির্দেশনায় গ্রামীণফোনের বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করলেন তিনি। গতকাল দিনব্যাপী রাজধানীর কোক স্টুডিওতে বিজ্ঞাপনটির শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। বেশ কয়েক বছর বিরতির পর বিজ্ঞাপনে মডেল হলেন ঐন্দ্রিলা।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অমিতাভ ভাই নিঃসন্দেহে এই সময়ের একজন মেধাবী নির্মাতা। এর আগেও তার নির্দেশনায় বিজ্ঞাপনে কাজ করার কথা ছিল। কিন্তু সব মিলিয়ে তা করা হয়ে উঠেনি। অবশেষে তার নির্দেশনায় প্রথম মডেলিং করলাম। খুউব ভালো লেগেছে কাজটি করে। তাছাড়া গ্রামীণফোনের বিজ্ঞাপনে মডেল হতে পারাটাও বড় বিষয়।

সবমিলিয়ে মডেলিংয়ে ফেরাটাও আমার বেশ ভালোভাবেই হলো। মহান আল্লাহর প্রতি অসীম কৃতজ্ঞতা। ঐন্দ্রিলা জানান, শিগগিরই তার নতুন এই বিজ্ঞাপনটি প্রচারে আসবে। মাত্র চার বছর বয়সে ঐন্দ্রিলা প্রাইজবন্ডের বিজ্ঞাপনে প্রথম মডেল হয়েছিলেন। বড় হয়ে তিনি আফজাল হোসেনের নির্দেশনায় সানক্রেস্টের বিজ্ঞাপনে মডেল হন।

এরপর আরো ১৪-১৫টি বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেন তিনি। তবে অমিতাভ রেজার নির্দেশনায় এবারই প্রথম মডেল হলেন ঐন্দ্রিলা। এদিকে ১০ বছর পর অভিনয়ে ফেরেন ঐন্দ্রিলা রুবেল হাসানের নির্দেশনায় ‘বিলাভড’ নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে। এতে তার বিপরীতে ছিলেন অপূর্ব।

পরে মাবরুর রশীদ বান্নাহ্র নির্দেশনায় টেলিফিল্ম ‘সাংসারিক ভালোবাসা’য় অভিনয় করেন অপূর্বরই বিপরীতে। দীপু হাজরার নির্দেশনায় ‘ফেইক লাভ’ নাটকে অভিনয় করেন সজলের বিপরীতে। তিনটি নাটক-টেলিফিল্মই ভালোবাসা দিবসে বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হবার কথা। অন্যদিকে দীপু হাজরা, কাজী সাইফ এবং পৃথুরাজের নির্দেশনায় আরো তিনটি নাটকে তিনি অভিনয় করবেন শিগগিরই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য